Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে স্বর্ণে লেখা কুরআন উদ্ধার

মুঘল সম্রাট আকবরের আমলের ধর্মগ্রন্থটি পাচার হচ্ছিল বাংলাদেশে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:৩৫ এএম

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজস্থান রাজ্যে উদ্ধার করা হয়েছে স্বর্ণে লেখা মুঘল সম্রাট আকবরের আমলের একটি পবিত্র কুরআন এবং এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে ১ জনকে। আনুমানিক ১৬ কোটি রুপি দামের কুরআনের এই কপিটি বাংলাদেশে পাচার করার চেষ্টা হচ্ছিল বলে জানিয়েছে রাজস্থান পুলিশ।
তবে সেটি বাংলাদেশে কার কাছে পাচার করার চেষ্টা করা হচ্ছিল, তা জানতে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে জেরা করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে ১ হাজার ১৪ পাতার ওই কুরআনটি গত বছর ডাকাতি করে ছিনিয়ে নেয় তিন ব্যক্তি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে দু’জনকে আগেই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। আর বৃহস্পতিবার কুরআনসহ গ্রেফতার করা হয় তৃতীয় ব্যক্তিকে।
জয়পুর উত্তরের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার রাজীব পাচার জানান, গত বছর ভিলওয়ারা জেলার এক বাসিন্দা যোগেন্দ্র সিং মেহতা পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন যে, তার হেফাজতে থাকা একটি বহুমূল্য কুরআনের কপি কয়েক ব্যক্তি ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।
‘মি. মেহতার পূর্বপুরুষেরা সম্রাট আকবরের কাছ থেকে দান হিসাবে ঐতিহাসিক মÐলগড় কেল্লা পেয়েছিলেন। সেখানেই স্বর্ণাক্ষরে লেখা ওই কুরআনের কপিটি তিনি পান। বন্ধু ও আত্মীয়স্বজনের মাধ্যমে তিনি সেটি বিক্রি করে দেয়ার চেষ্টা করছিলেন’।
মি. পাচার আরও বলেন, ‘কুরআনটি কেনার নাম করে ফাঁকা জায়গায় ডেকে নিয়ে গিয়ে সেটি ছিনতাই করা হয়। ওই ঘটনার পরে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। কিন্তু কোরআনের কপিটি তখন পাওয়া যায়নি’।
কয়েকদিন আগে সূত্র মারফত পুলিশ জানতে পারে যে, একটি বহুমূল্য কুরআন কেউ বিক্রি করার চেষ্টা করছে। বিশেষ তদন্ত দল তৈরি করে পুলিশই ক্রেতা সেজে যোগাযোগ করে ভাঁওয়ারি মীনা নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে। বৃহস্পতিবার সে ওই কুরআনটি ক্রেতারূপী পুলিশের কাছে বিক্রি করতে এলে হাতেনাতে তাকে ধরা হয়। মি. পাচার জানান, ‘জেরা করতেই ভাঁওয়ারী মীনা জানায় যে, সেটি বাংলাদেশে ১৬ কোটি রুপিতে বিক্রি করার চেষ্টা করছিল সে। তবে সেদেশে কার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল, সেটা এখনও বলেনি’। এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, আগেই গ্রেফতার হওয়া তার দুই সাথীকেও জেল থেকে নিয়ে এসে এক সঙ্গে বসিয়ে জেরা করা হবে। সূত্র : বিবিসি বাংলা।



 

Show all comments
  • সাঈদ, মুক্তিযোদ্ধা ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৯:১৫ এএম says : 0
    Quran - written in gold? Where was it hiding so long time? Why should it go to Bangladesh? Bangladesh doesn't need this kind of Quraan.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুরআন

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ