Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ট্রাম্পের শান্তি চুক্তি প্রত্যাখ্যানে বরিস জনসনের প্রতি ব্রিটিশ পার্লামেন্টের আহ্বান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:১৪ পিএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত মধ্যপ্রাচ্য শান্তি চুক্তির ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ বিরোধিতায় বিবৃতি দিয়েছেন ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ১৩৩ জন সদস্য।

ফিলিস্তিনের এক সংবাদ সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে। মার্কিন ওই শান্তি চুক্তিকে ফিলিস্তিনি জাতির অধিকার এবং আন্তর্জাতিক রীতিনীতির প্রতি মারাত্মক আঘাত বলে উল্লেখ করেছেন পার্লামেন্ট সদস্যরা।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ প্রত্যাখ্যান করার জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পার্লামেন্ট সদস্যরা। এছাড়া আলোচনায় ফিরে আসার ব্যাপারে ওই চুক্তিতে যৌক্তিক কোনো নির্দেশনা নেই, বরং শান্তি অর্জনের সুযোগগুলো কমে গেছে এবং আন্তর্জাতিক আইন-কানুন লঙ্ঘনেরও হুমকি তৈরি হয়েছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

ব্রিটিশ সদস্যরা আরো বলেছেন, ইসরায়েলি সেনারা ফিলিস্তিনিদের বাড়িঘর ভেঙে দেয়ায় যখন তারা গৃহহীন হয়ে কষ্টে দিন কাটাতে বাধ্য হচ্ছে ঠিক তখন এ শান্তি চুক্তিটি এমন এক সময়ে প্রকাশ করা হয়েছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ পরিকল্পনা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সে সময়ে তার সঙ্গে ছিলেন উপস্থিত ছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। প্রকাশিত এ পরিকল্পনায় ফিলিস্তিনের আল-কুদস বা জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের অবিভক্ত রাজধানী হিসেবে উল্লেখ করেছেন ট্রাম্প।

বিতর্কিত ও কথিত এই শান্তি চুক্তি ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’ আগেই প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন। ট্রাম্পের এ চুক্তি বাস্তবায়ন করা হলে মধ্যপ্রাচ্য ভয়াবহ রকমের অস্থিতিশীল হয়ে উঠবে বলে মনে করছে ফিলিস্তিনিরা।

ট্রাম্পের এ শান্তি চুক্তি পরিকল্পনার নিন্দা জানিয়েছে আরব দেশসমূহের সংগঠন আরব লিগ। এ চুক্তি ফিলিস্তিনিদের অধিকার পুরোপুরি লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেছে তারা। এছাড়া ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ প্রত্যাখান করেছে জাতিসংঘও। সূত্র- পার্সটুডে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইংল্যান্ড


আরও
আরও পড়ুন