Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পাকিস্তান সাহায্য পাঠাবে চীনে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বে থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে চীন। কিন্তু এই বিপদের দিনে তাদের পাশে দাড়িয়েছে বন্ধু রাষ্ট্র পাকিস্তান। আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য চীনের উহানে তৈরি হচ্ছে অস্থায়ী হাসপাতাল। সেখানে অভিজ্ঞ ডাক্তার-নার্স ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র পাঠাতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে তারা। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ওয়াইকে ফোন করে সেখানে সাহায্য পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মুহাম্মদ কোরেশি। তিনি জানান, ‘উহানে পাকিস্তানি শিক্ষার্থীদের দেখা-শোনা করছে চীন। এমন বিপদের দিনেও ভিন দেশের নাগরিকদের প্রতি তারা যতœবান। আমরা চীনের পাশে আছি। ডাক্তার, নার্স, ওষুধপত্র যা লাগে সব পাঠানো হবে পাকিস্তান থেকে।’ নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ চীনে মহামারীর চেহারা নিয়েছে। উহান যেন মৃত্যুপুরী। চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের রিপোর্ট বলছে, মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২০০। আক্রান্ত প্রায় ১২ হাজারের কাছাকাছি। রাস্তাঘাটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে লাশ। সংক্রমণের আশঙ্কায় ঘরবন্দি হাজার হাজার মানুষ। চীন থেকে অন্যান্য দেশেও ছড়িয়ে পড়ছে রোগ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) গেøাবাল হেলথ ইমার্জেন্সি জারি করেছে। চীনে আটকে রয়েছে বিভিন দেশের শিক্ষার্থীরা। পাকিস্তান থেকে উহানে গবেষণা করতে গিয়ে আটকে পড়েছেন অনেক শিক্ষার্থী। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ওয়াই বলেছেন, ‘পাকিস্তানি শিক্ষার্থীরা আমাদের নিজের সন্তানের মতো। তাদের স্বাস্থ্য, সুরক্ষার সব দায়িত্ব আমাদের।’ পাকিস্তানি শিক্ষার্থীদের নিরাপদে দেশে ফেরাবার ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। চীনের উহান-সহ মোট তিনটি শহরের প্রায় দু’কোটি মানুষকে শহর থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। হুবেই প্রদেশের উহান-সহ আরও মোট ১৩টি শহরের প্রবেশদ্বার কার্যত তালাবন্ধ করে দিয়েছে চীন প্রশাসন। সরকারের নির্দেশ, বাইরের কেউ ভিতরে ঢুকবে না, শহরের ভিতরে থাকা কেউ বের হবে না। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, দেশের নানা প্রান্ত থেকে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের নিয়ে আসা হয়েছে সংক্রামিত এলাকাগুলিতে। জায়গায় জায়গায় ক্যাম্প করে কাজে লেগে পড়েছেন সেনা-ডাক্তাররা। পরিস্থিতির মোকাবিলায় পিপল লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) ৪৫০ জন সেনা-ডাক্তারকে আপদকালীন অবস্থার জন্য নিয়োগ করেছে উহানের স্বাস্থ্য দফতর। চীনের পর ইতিমধ্যেই এই ভাইরাস সংক্রমণের খবর মিলেছে জাপান, হংকং, ম্যাকাউ, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, আমেরিকা, সউদী আরব, ভিয়েতনাম ও সিঙ্গাপুর থেকে। দ্য ডন।

 

 



 

Show all comments
  • Afsana Riya Afsana Riya ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:২০ এএম says : 2
    পাকিস্তান soja hoye darate pare na to চীনকে ki help korbe
    Total Reply(1) Reply
    • Nahid ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০২ পিএম says : 4
      Apni ego khabor rakhen
  • Imtiaz Khan ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:২০ এএম says : 1
    চীনে ডাক্তার নাই?
    Total Reply(0) Reply
  • সাইফুল ইসলাম চঞ্চল ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:২০ এএম says : 0
    মুসলমানরা সবসময় উদার হয়।
    Total Reply(0) Reply
  • জাহিদ খান ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:২১ এএম says : 0
    ধন্যবাদ পাকিস্তান। চীনের উচিত মুসলিম নির্যাতন বন্ধ করা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ