Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ইউনাইটেড হসপিটালের ক্যান্সার সেন্টারের এক দশক পূর্তি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:১৬ পিএম

আগামীকাল মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারী) বিশ্ব ক্যান্সার দিবস। বিভিন্ন আয়োজনে বিশ্বব্যাপি দিবসটি পালিত হচ্ছে। আর এরই ধারাবাহিকতায় ইউনাইটেড হসপিটালের ক্যান্সার সেন্টারের এক দশক পূর্তিতে ক্যান্সার যোদ্ধাদের নিয়ে সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারী) এক নজরে এক দশক শিরোনামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয। ‘আমি পারি ও আমি পারবো’ এই অঙ্গীকার নিয়ে ক্যান্সার রোগীরা একা নয়, এই প্রত্যয় ব্যক্ত করে অনুষ্ঠানে ইউনাইটেড হসপিটালের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ফরিদুর রহমান খান বক্তব্য রাখেন। তিনি ক্যান্সারের চিকিৎসায় এই হাসপাতালের সর্বাত্মক আন্তরিক প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরেন। এই দেশের ক্যান্সার চিকিৎসায় ইউনাইটেড হসপিটাল গত এক দশক ধরে পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার সামগ্রিক অঙ্গীকারের চেতনা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে গত দশ বছরের প্রতি বছরের একজন করে মোট দশজন ক্যান্সার রোগী ও তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। যাদের বক্তব্যে তাদের মনোবল ও সাহসিকতার সাথে রোগ মোকাবেলার গল্প ফুটে ওঠে এবং এর পাশাপাশি পারিবারিক ও সামাজিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় হসপিটাল ও চিকিৎসকের ভূমিকার প্রয়োজনীয়তাও উঠে আসে। প্রতিটি ক্যান্সার রোগীকে তাদের সাহসিকতার প্রতিক হিসাবে সম্মাননা দেওয়া হয়।

মহসিনা তাবাসসুম মিমলার কন্ঠে ক্যান্সার যুদ্ধে তার স্বামীর সহযোগী ভূমিকা, আবার খালেদা পারভীনের ক্যান্সার নিয়েই প্রতিদিনের বেঁচে থাকার জীবনজয়ী প্রেরণার কথা, উপস্থিত সকলের মাঝে প্রত্যাশা-বেদনা ও সর্বোপরি হার-না-মানা প্রত্যয়ের অনুভূতি জাগায়। অনুষ্ঠানে ক্যান্সার-জয়ী রোগী ও তাদের স্বজনেরা ইউনাইটেড হসপিটাল ও ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের প্রতি তাদের কৃতজ্ঞতা জানান।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত প্রখ্যাত চিকিৎসক ও লেখক প্রফেসর ডা. শুভাগত চৌধুরী এবং পরিবেশবিদ সৈয়দা রিজওয়না হাসান উপস্থিত সকলকে মোবারকবাদ জানান তাদের সাহসী ভূমিকা দিয়ে ক্যান্সারকে মোকাবেলার করার জন্য। এছাড়া ক্যান্সারের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলনে অংশ নিয়ে এই রোগের নির্ণয় আরও প্রারম্ভিক অবস্থায় অর্জনের প্রয়াসে এদেশের আপামর জনগোষ্ঠীকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য গণমাধ্যমের বিশাল ভূমিকাকে কাজে লাগিয়ে দ্বিধা, ভয়, লজ্জা ও কুসংস্কারকে পিছনে ফেলে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের পারিবারিক ও সামাজিক পর্যায়ে আরো সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াকে গতিশীল ও বেগবান করার আহ্বান জানান।

ইউনাইটেড হসপিটালের চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মোহাম্মদ ফাইজুর রহমান বলেন, ২০১০ সালে উদ্বোধন করার পর ইউনাইটেড হাসপাতাল ক্যান্সার কেয়ার সেন্টার, তার গুণমান এবং মমত্ববোধে শ্রেষ্ঠত্বের সাথে গত ১০ বছর ধরে এই দেশের মানুষের সেবা করে চলেছে, এ ধারাবাহিকতা ভবিষ্যতেও অব্যহত থাকবে।

ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. রশিদ উন নবী ও ডা. অসীম কুমার সেনগুপ্ত তাদের চিকিৎসক ও সহকর্মীদের নিয়ে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন চীফ অব কমিউনিকেশন এন্ড বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ডা. শাগুফা আনোয়ার।

উল্লেখ্য, বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে ইউনাইটেড হসপিটাল সপ্তাহব্যাপী কার্যক্রম পরিচালনা করছে, যার মধ্যে এই পেশেন্ট ফোরামটি ছাড়াও রয়েছে হাসপাতাল লবীতে বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদানের হেলথ বুথ, সেমিনার, বিভিন্ন ক্লাবে ও কর্পোরেট হাউসে ক্যান্সার সচেতনতামূলক কার্যক্রম এবং বিভিন্ন টেলিভিশনে আলোচনা সভায় ইউনাইটেড হসপিটালের ক্যান্সার বিশেষজ্ঞদের উপস্থিতি ও পরামর্শ প্রদান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইউনাইটেড হসপিটাল


আরও
আরও পড়ুন