Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

‘বেকারত্ব নিরসনে শিক্ষিত তরুণ কৃষিতে নজর দাও’

অর্থনীতিবিদদের পঞ্চম বার্ষিক সম্মেলনে আহ্বান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

বেকারত্ব দূর এবং চাকরির প্রতি আগ্রহ কমাতে দেশের শিক্ষিত তরুণদের কৃষি ক্ষেত্রে উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে অর্থনীতিবিষয়ক একটি আলোচনা অনুষ্ঠান থেকে। গতকাল সোমবার ঢাকাভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অন ইকোনমিক মডেলিং- সানেম আয়োজিত অর্থনীতিবিদদের পঞ্চম বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে ‘রিপ্লেক্টিং ইয়ুথ পারসপেক্টিভ অন ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক আলোচনায় এ আবহান জানানো হয়। সভায় রাজনীতিবিদ, অর্থনীতিবিদ, সমাজ উন্নয়নকর্মী, উদ্যোক্তা এবং শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহণ করেন।
গুলশান স্পেকট্রা কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত এই সম্মেলনে অংশ নিয়ে শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক বলেন, জনপ্রতিনিধি হওয়ার কারণে অনেক তরুণ চাকরির জন্য আসেন। তারা সরকারি চাকরি আর ব্যাংকের চাকরির জন্য আগ্রহ দেখান। কিন্তু কেউই কৃষক কিংবা উদ্যোক্তা হওয়ার হতে চান না। আমাদের দেশে অনেকেই দেখি কর্মহীন প্রবৃদ্ধি নিয়ে কথা বলে। কিন্তু তরুণ সমাজ নিজে থেকে কিছু করার আগ্রহ দেখায় না। বরং বিদেশে পাড়ি জমাতে তাদের আগ্রহ বেশি।
কৃষি অর্থনীতিতে গুরুত্ব দিয়ে ফেরদৌস বায়োটেকের প্রতিষ্ঠাতা ফারজিন ফেরদৌস আলম বলেন, পোশাক রপ্তানি আর বিদেশ থেকে অদক্ষ শ্রমিকদের পাঠানো রেমিটেন্সকে বড় করে দেখা হলেও বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনীতির ম‚ল ভিত্তি হিসাবে কৃষি এখনও প্রধান ভ‚মিকায়। এই খাতে তরুণদের আগ্রহী করতে পরিবেশ তৈরিতে গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, নানামুখী সামাজিক ও বাজার ব্যবস্থাপনার বাধার সম্মুখীন হচ্ছে কৃষিখাত। শিক্ষিত তরুণদের এই পেশার প্রতি যথেষ্ট অনীহা আছে। বর্তমানে যারা কৃষিকাজের সঙ্গে জড়িত আছে তাদের আয় বাড়াতে এবং তারা যাতে ক্ষতির সম্মুখীন না হয় সেদিকে নজর দিতে হবে। তাহলে কেবল তারা স্বাচ্ছন্দে নিজের সন্তানকে স্কুলে পাঠাতে পারবে এবং কৃষির প্রতি ওই সন্তানের একটা আগ্রহ সৃষ্টি হবে।
কৃষিতে তরুণদের উপস্থিতি কম হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে ফারজিন ফেরদৌস বলেন, তরুণরা কেবল ঢাকায় চলে আসতে চায় অথবা মনের মধ্যে বিদেশে পাড়ি দেওয়ার বাসনা নিয়ে ঘুরে। তার কেউ কৃষিকাজে আগ্রহ পায় না। মাঠে যারা কৃষিকাজ করেন তাদের অধিকাংশের বয়স ৪০ বছরের বেশি। মাত্র ২০ শতাংশ কৃষিকর্মী পেয়েছি যাদের বয়স ৩৫ বছরের নিচে।
তরুণদের উৎসাহ দিয়ে রাইড শেয়ারিং কোম্পানি পাঠাও লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী ইলিয়াস হোসেন বলেন, সমমনা একদল তরুণের কঠোর অধ্যবসায় ও পরিশ্রমের ফলেই আজকের পাঠাও দাঁড়িয়েছে। এটি সম্প‚র্ণ দেশীয় প্রচেষ্টার একটি উদাহরণ যা দেশের বাইরের বন্ধুদেরকেও অবাক করে।
এশিয়া ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি কাজী ফয়সাল বিন সিরাজ বলেন, দেশের ভেতরে কাজের অনেক সুযোগ থাকলেও এর জন্য দক্ষ জনশক্তির এখনও অভাব রয়েছে। সেজন্য ভবিষ্যতে সুনির্দিষ্ট দক্ষতা সম্পন্ন জনশক্তি গড়ে তুলতে নতুন কারিকুলাম সাজাতে হবে।
ব্র্যাকের পরিচালক নবনীতা চৌধুরী বলেন, দেশের মোট জনগোষ্ঠীর অর্ধেকই হচ্ছেন নারী। তাদের বাদ দিয়ে কোনো দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি সম্ভব নয়। সম্মেলনের বিভিন্ন অধিবেশনে সামষ্টিক অর্থনীতি, বাণিজ্য, জলবায়ু পরিবর্তন, প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন, শ্রমবাজার, দারিদ্র্য ও বৈষম্য বিষয়ে ৬৫ জন গবেষক তাদের গবেষণাকর্ম উপস্থাপন করেন। ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নেপালের ২৭ জন গবেষক এতে অংশ নেন। ##



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বেকারত্ব


আরও
আরও পড়ুন