Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ১০ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

আল্লাহ এবং ইসলাম সম্পর্কে বাউলদের কটূক্তি: নেটিজেনদের নিন্দার ঝড়

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:৫০ পিএম

সাম্প্রতিক সময়ে শরীয়ত বয়াতি, রিতা দেওয়ানসহ বেশ কয়েকজন বাউল শিল্পী মহান আল্লাহ তায়ালা ও ইসলাম ধর্ম নিয়ে চরম ধৃষ্টতা, অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছে। ইতোমধ্যে শরীয়ত বয়াতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং রিতা দেওয়ানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ফেইসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে তিব্র ক্ষোভ, নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। নেটিজেনদের দাবি করছে, যদি এখনই এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হয়, তাহলে এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে। তাই অনতিবিলম্বে এদের সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে যথাযথ শাস্তি প্রদানের জন্য সরকার ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে তারা।

বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিক ও গবেষক মেহেদী হাসান পলাশ তার ফেইসবুকে লিখেন, ‘শরীয়ত বয়াতিকে আটক করায় যারা সরকারের সমালোচনা করছিলেন, নতুন ভাইরাল হওয়া মহিলা বয়াতির ভিডিও দেখে তারা বলুন, সংস্কৃতির নামে এহেন ধৃষ্টতা কোনো ধর্মপ্রাণ মানুষ সহ্য করতে পারে?’

ক্ষোভ প্রকাশ করে সঙ্গীতশিল্পী খায়রুল ওয়াসি লিখেন, ‘দেশে কিছু কিছু বাউল শিল্পী আছেন, উনারা আল্লাহ ও রাসূল (স.) নিয়ে মনগড়া ফতোয়া দিয়ে জনসাধারণকে বিভ্রান্ত করেন। যেটা চরম অন্যায়।’

‘কিছু কিছু বাউল শিল্পীদের কারণে গানের প্রতি একটা ঘৃণা জন্মে যাচ্ছে ইসলামপ্রিয় মানুষের মনে।’ - রফিকুল ইসলামের মন্তব্য।

রায়েজিদ শাহ লিখেন, ‘এমন কিছু মুর্খ বাউলদের জন্যই আজ সমাজের মানুষ শিল্পী জাত নিয়ে কথা বলে...!’

‘গানের জগৎ নষ্ট করে দিচ্ছে এইসব শিল্পীরা। সবার উপরে আল্লাহ তার সাথে কোনো কিছুর তুলনা হয় না। এটা আমাদেরকে মানতে হবে।’ - লিখেছেন বিবাগী ইউসুফ।

মুস্তাফিজুন নূর লিটুর দাবি, ‘ডালপালা গজানোর আগেই প্রচলিত আইনে এদের বিচার হওয়া প্রয়োজন।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ