Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬, ০৩ শাবান ১৪৪১ হিজরী

চীনফেরত নাগরিকদের সাইবেরিয়ায় রাখবে রাশিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৩০ পিএম

চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে চীনে মৃতের সংখ্যা প্রায় ৫০০। বুধবার (০৫ ফেব্রæয়ারি) এ সংখ্যা ৪৯৩ ছাড়িয়ে গেছে। ওদিকে হংকংয়ে একজন এই ভাইরাসে মারা যাওয়ার পর সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের দুটি বিমান সংস্থা তাদের ফ্লাইট স্থগিত করেছে। জাপানের একটি ক্রুজ শিপকে কুয়ারেন্টাইন বা বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। ওই জাহাজে এখন পর্যন্ত ১০ জনের দেহে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে।

এদিকে, প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে চীনফেরত নাগরিকদের সাইবেরিয়ায় রাখার ব্যবস্থা করেছে রাশিয়া। সেখানে অন্তত ১৪ দিন তারা কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন।
মঙ্গলবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করে দেশটির কর্মকর্তারা জানান, করোনা ভাইরাসের উৎসস্থল চীনের হুবেই প্রদেশে আটকে পড়া ১৩০ রুশ নাগরিককে ফিরিয়ে আনতে দু’টি সামরিক বিমান পাঠানো হচ্ছে।

চীনফেরতদের পর্যবেক্ষণে রাখতে সাইবেরিয়ার তায়ুমেন এলাকায় বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রুশ উপ-প্রধানমন্ত্রী তাতিয়ানা গোলিকোভা। চীনের সঙ্গে রাশিয়ার প্রায় ৪ হাজার ৩শ কিলোমিটার স্থলসীমান্ত রয়েছে।

গত সপ্তাহেই দেশটিতে দু’জনের শরীরে এ প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এর উপদ্রব এড়াতে বেশ কিছু এলাকায় স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে রুশ কর্তৃপক্ষ। নিষিদ্ধ করা হয়েছে সীমান্ত পারাপারও। এছাড়া দুই দেশের মধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেন ও বিমান চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে। কোনো বিদেশির শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেলে তাকে ফেরত পাঠানোর বিশেষ ক্ষমতা দেয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর থেকে একদিনে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে মঙ্গলবার। এদিন প্রাণ হারিয়েছেন ৬৫ জন। ফলে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯২ জন। গতকাল চীনে নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৩ হাজার ৮৮৭ জন। অর্থাৎ দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে অন্তত ২৪ হাজার ৩২৪ জন।

চীনের মূল ভূ-খন্ডের বাইরে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন অন্তত দুইজন। মঙ্গলবার হংকংয়ে ৩৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তি প্রাণ হারান। তিনি কিছুদিন আগেই করোনাভাইরাসের উৎসস্থল চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ফিরেছিলেন। এর আগে, গত সপ্তাহে ফিলিপাইনে মারা যান উহানফেরত আরও একজন।
এদিকে, জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে রাখা প্রমোদতরীতে এখন পর্যন্ত অন্তত ১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। তবে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। কারণ এই ১০ জনের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে ২৭৩ জন যাত্রীকে পরীক্ষা করা মাত্র ৩১টি ফলাফলের মধ্যে। প্রমোদতরীটিতে মোট যাত্রীর সংখ্যা প্রায় ৩ হাজার ৭শ’।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, চীনের বাইরে এখন পর্যন্ত অন্তত ২৪টি দেশে ১৭৬ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। চীনের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্ত ৮৯২ জন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। সূত্র: রয়টার্স, জাপান টাইমস



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ