Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, ৩০ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

চুল থাকবে ঝলমলে

| প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

আজ-কালকার সময়ে পোশাকের সাথে তরুণ তরুণীরা মেতে উঠে সাজ সজ্জায়। বাহারি হেয়ার কাট ও হেয়ার স্টাইলে ভরে ওঠে তারুণ্য মেলা। তাই তারুণ্যের সাজ-সজ্জায় চুল থাকবে ঝলমলে। কিন্তু চুলের যত্ন না নিলে চুল কী ঝলমলে থাখবে? বাতাসে ধুলার ওড়াউড়ি আর অযত্নে চুল যখন রুক্ষ্ম ও রুগ্ন হয়ে ওঠে তখন তো যত্ন নিতেই হয়। চুলের ওপর দিয়ে ঋতুবদলের এ সময়টাতে বিশেষ যত্ন প্রয়োজন। শুষ্কতা তো রয়েছেই, সেই সঙ্গে রয়েছে খুশকি ও আদ্রতা জনিত ছত্রাক আর চুল পড়ার সমস্যা। এ জন্য প্রয়োজন সঠিক উপায়ে চুলের যত্ন নেওয়া। সবার চুলের ধরন একই রকমের নয়। কারও হয়তো তৈলাক্ত, আবার কারও শুষ্ক। তাই দেখা দিতে পারে বিভিন্ন সমস্যা। বিশেষজ্ঞদের মতে- যাঁদের চুল এবং মাথার ত্বক শুষ্ক, এ সময়টায় তাঁদের সমস্যাও বেড়ে যায় বহুগুণ। খুশকি, চুলের উজ্জ্বলতা কমে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়। যদিও ঠান্ডায় চুল ধোয়াটা একটু ঝামেলারই বটে, কিন্তু চুলের গোড়া পরিষ্কার রাখার জন্য নিয়মিত শ্যাম্পু করাটা জরুরী। আর যাঁদের মাথার ত্বক তৈলাক্ত, তাঁদের তো এ থেকে নিস্তার নেই। বাইরে বের হলে শ্যাম্পু করাটা বাধ্যতামূলক। নয়তো ধুলাবালি জমে চুলের গোড়ায় আটকে থাকে। শুষ্ক চুলে এক দিন বাদে আর তৈলাক্ত চুলে সপ্তাহে ৫ দিন শ্যাম্পু করা উচিত। শ্যাম্পু বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও চাই সতর্কতা। তৈলাক্ত চুলের জন্য কন্ডিশনারের মাত্রা কম এবং তেলবিহীন এমন শ্যাম্পু বেছে নেওয়া প্রয়োজন। আর শুষ্ক ত্বকে কন্ডিশনার এবং তেলের পরিমাণটা হবে বেশি। চুল ঠিক রাখতে তেলের বিকল্প নেই। তবে তেল কেনার সময় বুঝেশুনে বাছাই করে নিন
চুল সুস্থ্য ও সুন্দর রাখতে যা করতে হবে ঃ
চুলে রং কিংবা রিবন্ডিং করা থাকলে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন তেল ম্যাসাজ করুন। অন্তত ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন, এতে মাথার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়।
শ্যাম্পু করার পর তোয়ালে দিয়ে আলতো করে পানি মুছে নিতে হবে।
অতিরিক্ত গরম পানি দিয়ে চুল ধোয়া যাবে না।
প্রয়োজনে বাইরে বেরোনোর আগে মাথায় স্কার্ফ দিয়ে নিতে পারেন। এতে ধুলাবালির হাত থেকে রেহাই মিলবে চুলের।
আর চুল দীর্ঘ সময় ছেড়ে না রেখে বেণি করে রাখতে পারেন। এতে জটমুক্ত থাকবে আপনার কেশ গুচ্ছ।

ডা. জেসমিন আক্তার লীনা
সহকারি অধ্যাপক (চর্ম, যৌন ও অ্যালার্জি)
স্যার সলিমুল্লাহ্ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মিটফোর্ড, ঢাকা।
আনোয়ার খাঁন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল,
মিরপুর রোড ,ধানমন্ডি ঢাকা ।
প্রয়োজনে-০১৭২০১২১৯৮২।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পোশাক


আরও
আরও পড়ুন