Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ত্বকে মেকআপ জনিত সমস্যা

| প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

১. পিম্পল এবং ব্রেকআউট : সঠিকভাবে মেকআপ রিমুভ না করায় মুখে ব্রণ দেখা দিবে। সারাদিন মুখে মেকআপ লাগিয়ে ঘুরে বেড়ালেন, রাতে মেকআপ রিমুভ না করেই ঘুমিয়ে গেলেন। আর সকালে উঠে দেখছেন মুখভর্তি পিম্পল। সারাদিনের ধুলো, ময়লা, ঘাম, মেকআপ-ই এর জন্য দায়ী।
২. পোর সমস্যা : সঠিকভাবে মেকআপ রিমুভ না করলে পোর এ সমস্যা, সাইন্টিফিক-ভাবে এটা প্রমানিত যে, মেকআপ না রিমুভ করে ঘুমাতে গেলে তা পোর বন্ধ করে দেয়। যার ফলে দেখা দেয় স্কিন প্রবলেমস। তাই মেকআপ তুলে ঘুমাতে যাওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।
৩. স্কিন ড্রাইং: সঠিকভাবে মেকআপ রিমুভ না করাতে স্কিন আস্তে আস্তে ড্রাই হয়ে যায়।
মেকআপ করার ফলে এমনিতেই আমাদের স্কিন ড্রাই হয়ে যায়। কারণ, সারাদিন ধরে স্কিনে মেকআপ থাকার ফলে এটা স্কিন সেলস থেকে ময়েশ্চার এবং হাইড্রেশন শুষে নেয়। তবে মেকআপ যদি সারারাত ধরে রাখা হয় এবং এই প্রসেস প্রায়শই করা হলে ধীরে ধীরে স্কিন ড্রাই হয়ে যেতে থাকে।
৪. প্রিম্যাচিওর এজিং এবং রিংকেলস : কম বয়সে স্কিন বুড়িয়ে যাওয়া এবং রিংকেল পড়ে যাওয়ার একটা অন্যতম কারণ হচ্ছে মেকআপ ঠিকমতো না তোলা। তাই আপনার উচিৎ মেকআপ-টা সঠিকভাবে রিমুভ করা।
৫. স্কিনে প্রদাহ : আমরা সবাই-ই জানি, মেকআপ প্রোডাক্টগুলো বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি হয়। এই কেমিক্যাল যুক্ত প্রোডাক্টগুলো লং টাইমের জন্য স্কিনে রাখলে স্কিন ইরিটেশন, ব্লাকহেডস, হোয়াইটহেডস ইত্যাদি হওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু না।
৬. আইব্রো এবং আইল্যাশ পড়ে যাওয়া, মাশকারা, আইব্রো পমেড, আইব্রো পেনসিল ইত্যাদি চোখটাকে সুন্দর করে তুললেও এগুলো লং টাইম রাখার ফলে আইল্যাশ এবং আইব্রো হেয়ার পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
৭. চোখে ইরিটেশন : আইলাইনার, আইশ্যাডো, কাজল, মাশকারা, গ্লিটার ইত্যাদি রিমুভ না করার ফলে চোখে ইরিটেশন, চোখ ফুলে যাওয়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া এবং চোখ দিয়ে পানি পড়তে পারে। তাই চোখের মেকআপ সঠিকভাবে রিমুভ করে ফেলা উচিত ।
৮. স্কিন ইনফেকশন : সারারাত স্কিনে মেকআপ রাখারা ফলে বা মেকআপ সঠিকভাবে রিমুভ না করার ফলে স্কিন ইনফেকশন হতে পারে। হয়ত ডিরেক্টলি স্কিনে ইনফেকশন হবে না। তবে ছোট ছোট বাম্প, পিম্পল এগুলো স্কিন ইনফেকশন-এর লক্ষণ বলেই ধরা যেতে পারে। ধীরে ধীরে যা বাড়তে পারে।
৯. ড্রাই লিপস : লিকুইড লিপস্টিক-এর ব্যবহারতো বর্তমানে প্রচুর। যত ভালো ব্রান্ডের লিকুইড লিপস্টিকই হোক না কেন, এগুলো লং টাইম রাখলে ঠোঁটে ড্রাই ফিল হবেই। পরিশেষে বলতে পারি, প্রয়োজনে যখন মেকআপ করবেন আবার প্রয়োজনে মেকআপ তুলে ফেলা আপনার প্রয়োজন। যদি বিষয়টি গুরুত্ব না দেন তাহলে মেকআপজনিত সমস্যায় আপনার ত্বকের বা মুখের মারাত্বক সমস্যা হতে পারে। ভালো থাকুন, সুস্থ ও সুন্দর থাকুন।

ডা. জাহেদ পারভেজ বড় ভূঁইয়া
চর্ম ও যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ এবং এয়েস্থে’টিকস সার্জন
শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
ডা. জাহেদ হেয়ার অ্যান্ড স্কিনিক
গ্রিনরোড, পান্থপথ, ঢাকা।
মোবাইল: ০১৭০৭-০১১২০০, ০১৭৩০-৭১৬০৬০।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ত্বক

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
১১ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন