Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐকমত্য জরুরি : আসিফ নজরুল

প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : সবাই আমরা যদি এটা রিয়েলাইজ করিÑ বাংলাদেশে আইএসের একটা স্ট্রং ঘাঁটি গড়ে উঠেছে, অবিলম্বে সরকারকে প্রধান প্রধান বিরোধী দলসমূহকে নিয়ে একটা জাতীয় ঐকমত্য গড়ে তুলতে হবে। জাতীয় স্ট্র্যাটেজি নির্ধারণ করতে হবে কিভাবে আমরা এই সঙ্কট মোকাবেলা করব। গতকাল শনিবার সাংবাদিকদের দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রফেসর ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আসিফ নজরুল।
আসিফ নজরুল বলেন, এই সঙ্কট পুলিশ, গোয়েন্দা, র‌্যাব, সেনাবাহিনী, বিজিবি দিয়ে হয়তো তাৎক্ষণিকভাবে মোকাবেলা করা সম্ভব, কিন্তু সুদূরপ্রসারী মোকাবেলা করতে হলে অবশ্যই আমাদেরকে বৃহত্তর রাজনৈতিক সমঝোতায় আসতে হবে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের ইতিাসে সংঘটিত সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা এটি। সময় এসেছে তা রিয়েলাইজড করা যে, এটা আইএস করেছে। বারবার বলা হচ্ছে, এসব ঘটনা আইএস করছে, কিন্তু সরকার বিরোধী দলকে হেনস্থা করার জন্য, বিরোধী দলকে দোষারোপ করার জন্য, বিরোধী দলকে নির্মূল করার জন্য এত দিন ধরে এই ঘটনাগুলোকে উপেক্ষা করে চলেছে। বহুবার এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর পর আইএস তার দায় স্বীকার করেছে, বাংলাদেশ তা উপেক্ষা করেছে। এত বড় একটা নির্মম, পৈশাচিক ভয়াবহ ঘটনার পরও যেন কোনো নোংরা রাজনীতি যেন না হয়।
তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারির একতরফা নির্বাচনের পর যে রাজনৈতিক ও সামাজিক অস্থিরতা বিরাজ করছে, সরকারের প্রচ- দমননীতি চলেছে, বিরোধী দলের পক্ষ থেকে তার তীব্র আপত্তি, বিরোধিতা করা হয়েছে। এ সবকিছুই বাংলাদেশে আইএসের মতো একটি শক্তির উত্থান ঘটার প্রেক্ষাপট তৈরি করেছে। এই প্রেক্ষাপট তৈরি হওয়ার পেছনে সরকার, বিরোধী দল সকলেই সমভাবে দায়ী। কারণ রাজনৈতিক ও সামাজিক সমঝোতার অভাব। সামাজিক অস্থিরতা। এসব দূর করতে হবে। তা দূর করতে হলে আমাদের একসঙ্গে বসে একটা গ্রহণযোগ্য রাজনৈতিক সমঝোতায় আসতে হবে। তা না হলে এই সমস্যা এমন একটা জায়াগায় চলে যাবে, তখন আমাদের চরম অনুতাপ করা ছাড়া কোনো কিছু করার থাকবে না।
তিনি আরো বলেন, যে বাংলাদেশকে নিয়ে আমরা গর্ব করি, সেই বাংলাদেশ পুরোপুরি বদলে যাবে যদি অচিরেই এই সমস্যার সমাধান করতে না পারি। আজকে আফগান বা পাকিস্তানের যে অবস্থা, যদি সরকার ও বিরোধী দলগুলোর মধ্যে চলমান তীব্র রাজনৈতিক ও সামাজিক অস্থিরতা অব্যাহত থাকে এবং আইএসের মতো শক্তির প্রেক্ষাপট অব্যাহত থাকে অচিরেই বাংলাদেশ পাকিস্তান, আফগানিস্তানের মতো পরিস্থিতি হওয়ার আশঙ্কা আমার।
এক প্রশ্নের জবাবে ড. আসিফ নজরুল বলেন, এ ধরনের জঙ্গি, সন্ত্রাস দমন বাংলাদেশের পক্ষেই সম্ভব যদি আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকি। ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশের পক্ষে এটা সম্ভব। বিভক্ত বাংলাদেশের পক্ষে এ ধরনের পরিস্থিতি বজায় থাকলে আমেরিকা বলুন, ভারত বলুনÑ যে যেভাবে পারে নিজের স্বার্থে তারা হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করবে। কারণ এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে তাদের হস্তাক্ষেপ করার অজুহাত তৈরি হয়। নিরাপত্তার স্বার্থে এই সঙ্কট দেশীয়ভাবে মোকাবেলা করা গেলেই সবচেয়ে ভালো। বিদেশীদের পরামর্শ নেয়া যেতে পারে, তবে দেশীয় নিরাপত্তা বাহিনীকেই শক্তিশালী ভূমিকা পালন করতে হবে। আমাদের সুদৃঢ় রাজনৈতিক ঐক্য থাকতে হবে। তা না হলে বাংলাদেশের ওপর বিদেশীদের নিয়ন্ত্রণ, খবরদারিত্ব আরো বৃদ্ধি পাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐকমত্য জরুরি : আসিফ নজরুল
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ