Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

পবিত্র লাইলাতুল কদর পালিত

প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : মুসলমানদের জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের বিশেষ রহমত এবং অনুগ্রহের রজনী হচ্ছে লাইলাতুল কদর। গতকাল ২৬ রমজান দিবাগত রাত ছিল লাইলাতুল কদর। লাইলাতুল কদর অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ রাত। পবিত্র কুরআন রমজান মাসের এ রজনীতেই নাযিল শুরু হয়েছিল। এ রাতের ইবাদত বন্দেগীকে নাজাতের উছিলা এবং হাজার মাসের ইবাদতের চাইতে উত্তম বলে পবিত্র কুরআনে বর্ণিত হয়েছে। ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা যথাযথ পবিত্রতা ও মর্যাদার সাথে লাইলাতুল কদর পালন করেছেন। পবিত্র লাইলাতুল কদরের রজনীতে ইবাদত বন্দেগীর জন্য ইফতার ও মাগরিব নামাজ শেষে ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ মসজিদ, মাজার, দরবার, খানকাসমূহে জমায়েত হতে শুরু করেন। রাজধানীর মহাখালীস্থ মসজিদে গাউছুল আজম এবং জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমে বিপুলসংখ্যক মসুল্লী জমায়েত হয়ে রাতভর ইবাদত বন্দেগী করেন। আজিমপুর, বনানী ও শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানসহ বিভিন্ন কবরস্থানে জিয়ারতকারীদের ভিড় ছিল সারা রাতই। রাতভর ইবাদত বন্দেগীর মধ্যে ছিল কোরআনখানি, নামাজ, জিকির, মিলাদ মাহফিল, দান খয়রাত, শেষে রোজাদার মুসলমানগণ ক্ষমার শেষ সুযোগ মনে করে মুনাজাতে আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে কান্নায় ভেঙে পড়েন। আখেরি মুনাজাতে দেশ ও জাতির শান্তি সমৃদ্ধি এবং বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করা হয়।
মসজিদে গাউছুল আজম
মহাখালীস্থ মসজিদে গাউছুল আজমে পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে বিশেষ কর্মসূচি পালন করা হয়। এশা ও তারাবী নামাজ শেষে শুরু হয় কদরের বিশেষ ইবাদত-বন্দেগী। মধ্যরাতের পর এ মসজিদে মুসল্লিদের আগমন বৃদ্ধি পেতে থাকে। রাত ২টার পর থেকে শুরু হওয়া কিয়ামুল লাইলে কোরআনের তৃতীয় এবং শেষ খতম হয়।
মসজিদের মহাসচিব মাওলানা শাব্বির আহমদ মোমতাজির পরিচালনায় এ দিনের ওয়াজ মাহফিলে বক্তব্য রাখেন দেশের বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরাম এবং মসজিদের ইমাম। বক্তাগণ বলেন, এ মহিমাময় রাতে হযরত জিব্রাইল (আ.) বিপুলসংখ্যক ফেরেশতাদের নিয়ে পৃথিবীতে বিচরণ করেন এবং ইবাদত বন্দেগীতে মশগুলদের জন্য আল্লাহ তা’য়ালার ক্ষমার ঘোষণা দিতে থাকেন। বক্তাগণ বলেন, কদরের রাতে নাজিল হওয়া মুক্তির চাবিকাঠি পবিত্র কুরআনের আলোকে সমাজ, রাষ্ট্র, ব্যক্তি ও পারিবারিক জীবন গড়ে তোলার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। তারা বলেন, এ মহিমাময় রাতে নিজের কৃত দোষ-ত্রুটি, গুণাহ ও পাপ কাজের জন্য তওবা করে গুণাহ মাফের জন্য আল্লাহর দরবারে আকুতি জানালে মহান আল্লাহ সে দোয়া কবুল করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ