Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

লোহাগাড়ায় টোকেনে চাঁদাবাজি

তাজ উদ্দীন, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) থেকে | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় টোকেনে চলছে অবাধে কাঠ ও লাকড়ি পাচার। দিনদুপুরে বিট অফিসগুলোর সামনে দিয়ে ট্রাক ও জিপে করে কাঠ ও লাকড়ি পাচারের উৎসব চলছে। এসব লাকড়ির অধিকাংশ ব্যবহার হচ্ছে স্থানীয় ইটভাটাগুলোতে। এতে বন উজাড় হয়ে যাচ্ছে। নষ্ট হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য। হুমকির মুখে পড়েছে জীববৈচিত্র। ফলে খাদ্যের অভাবে লোকালয়ে হানা দিচ্ছে বন্যহাতি ও নানা জীবজন্তু।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ডলু বিট অফিসের অধীনস্থ উপজেলার পুটিবিলার এম হাটের অস্থায়ী একটি অফিসের সামনে এক লোক দিনদুপুরে কাঠ ও লাকড়ির গাড়ি থেকে প্রকাশ্যে এসব টোকেনের লেনদেন করছে। টোকেট না থাকলে গাড়ি আটকে রাখা হয়।
এক চালক জানান, প্রতিটি ছোট বড় গাড়ি থেকে ৩শ’ ১ হাজার টাকা নিয়ে থাকেন। টাকা না দিলে গাড়ি ছাড়ে না। এ নিয়ে পুটিবিলা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদ সভাপতি আ স ম দিদারুল আলম ক্ষোভ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ফরেস্ট অফিসের লোকগুলো রাস্তায় দাঁড়িয়ে চাঁদাবাজি করে আর কিছু লোক রিজার্ভ বাগানগুলো ধ্বংস করে।
এ ব্যাপারে মুঠোফোনে জানতে চাইলে ডলু বিট কর্মকর্তা মোবারক হোসেন কৌশলে এড়িয়ে যান এবং জানান, আমি চট্টগ্রাম শহরে আছি, একদিন অফিসে আসেন আপনার সাথে বসবো।
পদুয়া রেঞ্জ অফিসার সরোওয়ার জাহানের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চাঁদাবাজি

৫ ডিসেম্বর, ২০২০
২৪ নভেম্বর, ২০২০
২ নভেম্বর, ২০২০
২৬ আগস্ট, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন