Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ০৯ চৈত্র ১৪২৫, ১৫ রজব ১৪৪০ হিজরী।

ইউজিসি এওয়ার্ড ২০১৫’র জন্য মনোনয়ন পেলেন চুয়েটের সহযোগী অধ্যাপক ড. আয়শা আক্তার

প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর পুরকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আয়শা আক্তার বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের ইউজিসি এওয়ার্ড-২০১৫-এর জন্য মনোনীত হয়েছেন। “পোটেনশিয়ালিটি অব রেইনওয়াটার হারভেস্টিং ফর এন আরবান কমিউনিটি ইন বাংলাদেশ’’ শীর্ষক গবেষণা প্রবন্ধের জন্য তাকে মনোনীত করা হয়েছে বলে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন থেকে প্রেরিত এক পত্রে জানানো হয়। উক্ত গবেষণা প্রবন্ধে উল্লেখ করা হয় যে, “ব্যয় সাশ্রয়ী হওয়ায় বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ বা রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং (জডঐ) পদ্ধতি বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে প্রচলিত হওয়া সত্ত্বেও নগরআঞ্চলের ব্যপ্তি স্বল্প পরিসরে। বার্ষিক আনুমানিক ৩০০০ মিলিমিটার গড় বৃষ্টিপাত হওয়ার পরও প্রায় প্রতিবছরে চট্টগ্রামের দক্ষিণ আগ্রাবাদ এলাকায় বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতা আবার একই বছর শুষ্ক মৌসুমে সুপেয় পানির অপ্রতুলতা দেখা যায়। ঐঊঈ–ঐগঝ নামক একটি কম্পিউটার সফটওয়্যার ব্যবহার করে এর মাধ্যমে অতিরিক্ত বৃষ্টির পানির পরিমাণ নির্ণয় করা হয় এবং দেখা যায় উক্ত পদ্ধতিতে ক্ষেত্রবিশেষে প্রায় ২৬% জলাবদ্ধতা নিরসন করা যেতে পারে। ওপরদিকে সংরক্ষিত বৃষ্টির পানি ব্যক্তিপ্রতি প্রায় ২০ লিটার পানির চাহিদা পূরণ করতে পারবে। গবেষণায় নির্ধারিত এলাকাকে বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের সম্ভাব্যতা যাচাই এর জন্য অহধষুঃরপ ঐরবৎধৎপযু চৎড়পবংং (অঐচ) পদ্ধতিটি বেছে নেওয়া হয় এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে শহরের এই প্রান্তে প্রতিটি বাড়ির ছাদের আয়তন, ঢাল, নালার ঘনত্ব ও অতিরিক্ত বৃষ্টির পানির গুনাংক (ৎঁহড়ভভ পড়বভভরপরবহঃ) মোট চারটি নিয়ামক ব্যবহৃত হয়। উক্ত নিয়ামকের ভিত্তিতে এলাকাটিকে মোট তিনটি সম্ভাব্য জোনে ভাগ করা হয় যথা ‘উপযুক্ত’, ‘মাঝারী’ ও ‘স্বল্প’ এবং যাদের শতকরা আয়তন যথাক্রমে এলাকাটির ১৯, ৬৪ ও ১৭ ভাগ। এই গবেষণার ফলে পরবর্তিতে ঐঊঈ–ঐগঝ ও অঐচ পদ্ধতি অন্য যে কোন এলাকায় প্রয়োগ করে বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ সম্ভাব্যতা যাচাই করা যাবে।”এদিকে গৌরবময় এই এওয়ার্ড প্রাপ্তিতে ড. আয়শা আক্তারকে ফুলেল শুভেচ্ছায় অভিনন্দন জানান চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। এ সময় তাকে শুভেচ্ছা ক্রেস্টও উপহার প্রদান করা হয়। ভাইস চ্যান্সেলরের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন পুরকৌশল বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান ভূঁইয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ