Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

যেভাবে দেখছে ভারতের মিডিয়া বাংলাদেশের জয়

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১১:৫৫ এএম

পশ্চিমবঙ্গের সংবাদমাধ্যমগুলো প্রশংসা করেছে বাংলাদেশের নায়কোচিত জয়ের। প্রতি পরতে পরতে উত্তেজনার রেণু ছড়িয়ে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ জিতে নিল যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল। তাও আবার ভারতের মতো শক্তিশালী ও নাক উঁচু ক্রিকেট পরাশক্তিকে হারিয়ে। অবশ্য এমন জয়কে ভিন্নভাবে দেখেনি ভারতের মিডিয়া। তারা স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছে। অবশ্য কিছু কিছু সংবাদ মাধ্যম বাংলাদেশের জয়ের খবরের পাশাপাশি ম্যাচ শেষে অতিরিক্ত উদযাপন ও কিছুটা হাতাহাতির বিষয়টিও উল্লেখ করেছে। কেউ কেউ সেটাকেই করেছে লিড।

এই সময় লিখেছে, ‘বাংলাদেশের বিশ্বজয়’। তারা আরো একটি প্রতিবেদন লিখেছে এই শিরোনামে, ‘ইতিহাস লিখলেন ১১ বাঙালি, ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে বিশ্বজয়ী বাংলাদেশ।’

আনন্দবাজার তাদের অনলাইন সংস্করণে অবশ্য টেনেছে হাতাহাতির বিষয়টি, ‘প্রায় হাতাহাতিতে শেষ হল দ্বৈরথ।’

হিন্দুস্থান টাইমস শিরোনাম করেছে, ‘Bishnoi’s heroics in vain as Bangladesh beat India to clinch maiden U19 World Cup title.’ (বৃথা গেল বিষ্ণোইর নায়কোচিত প্রচেষ্টা, ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের প্রথম শিরোপা জয়)।

এনডিটিভি লিখেছে, ‘Bangladesh Beat India To Win Maiden Under-19 World Cup Title’ (ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের প্রথম অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জয়)।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার শিরোনাম, ‘Bangladesh beat India to win maiden ICC U-19 World Cup title.’ (ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের প্রথম আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জয়)।

ইন্ডিয়া টুডে অবশ্য বাংলাদেশের জয়ের চেয়ে বেশি হাইলাইট করেছে ম্যাচ শেষে হাতাহাতির বিষয়টিকে। তারা শিরোনাম করেছে, ‘U19 WC: Priyam Garg holds Bangladesh players responsible for ugly scuffle after final.’ (ফাইনাল শেষে হাতাহাতির জন্য প্রিয়াম গার্গ বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের দুষেছেন।’

দ্য হিন্দু অবশ্য বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয় কিংবা ফাইনালে ভারতের হার নিয়ে কোনো প্রকার প্রতিবেদনই প্রকাশ করেনি।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস একাধিক প্রতিবেদন করেছে যুব বিশ্বকাপ নিয়ে। এক প্রতিবেদনের শিরোনাম করেছে, `Neighbourhood heroes.’ (প্রতিবেশী নায়কেরা)। আর একটি শিরোনাম করেছে, ‘‘Wonderful story of Bangla cricket.’ (বাংলা ক্রিকেটের বিস্ময়কর গল্প)। এ ছাড়া তারা রবি বিষ্ণোই ও হাতাহাতির ঘটনা নিয়েও প্রতিবেদন লিখেছে।

এদিকে ভারতের দ্য টেলিগ্রাফ লিখেছে, ‘Heartbreak for India boys.’(হৃদয় ভাঙল ভারতের ছেলেদের)।



 

Show all comments
  • মোঃসজিব ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:৪৩ পিএম says : 0
    ০৫-০২-২০২০ ইং তারিখে ইনকিলাব এ একটি চাকরি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।যদি ওই নিউজ টা একটু দেওয়া যেতো তাহলে অনেক উপকার হতো। ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ