Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ভারী সমরাস্ত্র ক্রয়ের দাবিতে পার্লামেন্টে ঢুকে পড়ল পুলিশ ও সেনাবাহিনী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:১৩ পিএম

মধ্য আমেরিকার দেশ এল সালভাদরের পার্লামেন্টের ভেতরে অবস্থান নিয়ে ভারী অস্ত্রশস্ত্র ক্রয় সম্পর্কিত একটি বিল অনুমোদনের দাবি জানিয়েছে সেনা ও পুলিশ সদস্যরা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, ক্রমবর্ধমান সন্ত্রাসী কার্যক্রম ঠেকাতে ১০৯ মিলিয়ন ডলারের অস্ত্র কেনার বিলটির পক্ষে প্রেসিডেন্টের সমর্থন থাকলেও সংখ্যাগরিষ্ট সাংসদরাই এটা নিয়ে আলোচনায় রাজি হননি। ফলে গত বছর থেকে ঝুলে থাকা এই বিল নিয়ে ক্ষোভ ছড়িয়েছে সেনাবাহিনীতে।

বিশ্বে যেসব দেশ অভ্যন্তরীণ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে প্রায় বিপর্যস্ত তার মধ্যে অন্যতম মধ্য আমেরিকার দেশ এল সালভাদর। গত বছরের জুনে দায়িত্ব গ্রহণের সময় প্রেসিডেন্ট নায়িব বুকেলে দেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

এরই ধারাবাহিকতায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবেলায় পুলিশ ও সেনাদের জন্য উন্নত অস্ত্র কেনার জন্য সম্প্রতি ১০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি বিল সংসদে তোলেন প্রেসিডেন্ট। এই বিলের আওতায় পুলিশ সদস্যদের জন্য উন্নত গাড়ি, পোশাক, একটি হেলিকপ্টার ও মনিটরিংয়ের জন্য যন্ত্রপাতি কেনার পরিকল্পনা রয়েছে।
কিন্তু গত কয়েক সপ্তাহ যাবত অধিকাংশ সংসদ সদস্যরা এই বিলের পক্ষে আলোচনায় রাজি ছিলেন না। এ কারণে সংসদ সদস্যদের ওপর মনস্তাত্ত্বিক চাপ তৈরির উদ্দেশ্যে পার্লামেন্টের বাইরে বিক্ষোভের জন্য সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

গত রোববার প্রেসিডেন্টের আহ্বানে সাড়া দিয়ে প্রায় ৫০ হাজার সমর্থক পার্লামেন্ট চত্বরে সমবেত হয়। আর এসময় বেসামরিক নাগরিকদের পাশাপাশি সরকারপন্থী সেনা ও পুলিশ সদস্যরাও সেখানে জড়ো হয়। প্রেসিডেন্ট সংসদ সদস্যদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেয়ার সময় সেনা ও পুলিশের সদস্যরা পার্লামেন্টের ভেতরে কিছু সময়ের জন্য অবস্থান নেন। এসময় সংসদ সদস্যদের উদ্দেশ্যে প্রেসিডেন্ট বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে এই বিল সম্পর্কে সংসদ সদস্যরা বিতর্ক না করেন, তাহলে তার সমর্থকরা বড় ধরনের প্রতিবাদ গড়ে তুলবে।

এদিকে তার রাজনৈতিক বিরোধীরা বলেন, বিল পাস করাতে সরকার হুমকি দিচ্ছে এবং যা কর্তৃত্ববাদের দিকেই চলে যাচ্ছে দেশ। নায়িব বুকেলের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান চেষ্টারও অভিযোগ করেন তারা।

তবে সমালোচনা উড়িয়ে দিয়ে প্রেসিডেন্ট বলেন, যদি আমি একনায়ক হতাম, তবে সবকিছুর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিতাম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ