Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রুদ্রমূর্তি করোনাভাইরাসের : ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেল ২৪২ জনের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১১:২৩ এএম

কোনোভাবেই ঠেকানো যাচ্ছে করোনাভাইরাস। বরং হঠাৎ করেই রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছে চীনের প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন ২৪২ জন। মারা যাওয়া ওই ২৪২ জনের সবাই হুবেইপ্রদেশের।


এই ভাইরাসে চীনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে এখন এক হাজার ৩৫৫ জনে দাঁড়িয়েছে। চীনের বাইরে হংকং ও ফিলিপাইনে একজন করে মোট দুজন মারা গেছেন। খবর বিবিসির।

এ ভাইরাসে চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ হাজার ৫৩৯ জন এবং চীনের বাইরে ৫২৪ জন। সব মিলিয়ে পুরো বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজার ৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

এখন পর্যন্ত মোট পাঁচ হাজার ৬৮০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানায়, বুধবার ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৮৪০ জন।

এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৫৯ হাজার ৫৩৯ জন। এর মধ্যে ৬ হাজার ৫০০ জনের অবস্থা ভয়াবহ বলে জানানো হয়েছে। পর্যবেক্ষণে রয়েছে এক লাখ ৮৫ হাজার মানুষ।

হুবেইপ্রদেশের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রদেশটিতে নতুন করে ১৪ হাজার ৮৪০ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এ নিয়ে হুবেইপ্রদেশে মারা গেছে এক হাজার ৩১০ জন, আক্রান্ত হয়েছে ৪৮ হাজার ২০৬ জন। হুবেইপ্রদেশের রাজধানী উহানে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৮৪০ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে।

সেখানকার একটি সামুদ্রিক খাদ্য ও মাংসের বাজার থেকে করোনাভাইরাসটির উৎপত্তি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভাইরাসটি যাতে ছড়িয়ে না যায়, সে জন্য চীন হুবেইপ্রদেশকে পুরো দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। ওই অঞ্চলের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে চীনসহ বাইরের বিশ্বের।

এদিকে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিন যে পরিমাণ আক্রান্তের খবর আসছে, তাতে আক্রান্তের আসল খবর জানা যাচ্ছে না।

কারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে, শুধু তাদের হিসাব পরিসংখ্যানে ধরা হচ্ছে। তাই এর প্রকৃত হিসাব বের করা বা জানা খুবই কঠিন ব্যাপার, যা আরেকটি আশঙ্কার কারণ।

চীনের সব প্রদেশসহ বিশ্বের ২৬ দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। চীনের বাইরে এ পর্যন্ত ৫২৪ জন আক্রান্ত শনাক্ত করা হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০৯ পিএম says : 0
    বিজ্ঞান ও পযুক্তি গবেষণায় বিশ্ব উন্নতি কল্পনাকেও হার মানিয়েছে। মানুষ যত উন্নত আধুনিক হচ্ছে ততই নৈতিকতা ধ্বংসপ্রাপ্ত হচ্ছেন। এই করোনা ভাইরাস নিঃসন্দেহে আল্লাহ্ গজবের ক্ষুদ্র আলামত। আরও ভয়ংকর ভয়াবহ গজব আমাদের উপর আসবে। ড়াক্তার ঔষধের বিজ্ঞানীদের কোন গবেষণায় কাজ হবেনা। মহা বিশ্বে ক্ষুদ্র এই পৃথিবী সর্ষে ধানার মত। আমরা প্রকাশ‍্যে আল্লাহর বিরুদ্ধে নাপরমানীতে লিপ্ত। সভ‍্যতার দোহাই দিয়ে আধুনিক পযুক্তির দেশ কয়দিন আগেও এই চীন ছিল বিশ্বনেতার বিশ্ব বানিজ‍্যের ও মারনাস্ত্রের বীর। এখন ভিখারির মত চিকিৎসা সাহায্যের এলোমেলো লন্ড বন্ড দিশাহারা। আল্লাহ্ ইসরায়েলের আমেরিকার শাস্তি ও প্রস্তূথ করে রেখেছেন। উপ সাগরীয় এলাকায় রাজাবাদশারা নৈতিকতা চরমসিমা অতিক্রম করে যাচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়া সহ সারাবিশ্বে ইসলাম ও মুসলমানদের করুন পরিণতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আলেম সমাজ বিভিন্ন দলে বিবক্ত আমরা কেও নিরাপদ নয়। একমাত্র আল্লাহর দরবারে প্রীয় নবী (সাঃ) উম্মত হিসাবে এই ভয়াবহ গজব হতে রক্ষা পাওয়ার আকুল ফরিয়াদ করছি। মৃত্যু যেন ইজ্জতের সাথে হয়। আমিন আমিন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

২৮ নভেম্বর, ২০২০
২৮ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ