Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ০৬ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

হাফিজ সাইদের সাড়ে ৫ বছর জেল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৩:৪৯ পিএম

সন্ত্রাসে আর্থিক মদতের মামলায় পাকিস্তান ভিত্তিক চরমপন্থী সংগঠন লস্কর-ই-তইবার প্রধান হাফিজ সাইদকে আজ বৃহস্পতিবার সাড়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিল লাহৌরের সন্ত্রাস-দমন আদালত। ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের (এফএটিএফ) সঙ্গে চার দিন পরেই প্যারিসে বৈঠক রয়েছে পাকিস্তানের। ‘ধূসর তালিকা’ থেকে নিজেদের নাম সরানোর পদক্ষেপ হিসাবে পাকিস্তান হাফিজকে জেলে পাঠাল বলে মনে করা হচ্ছে। একই সাজা হয়েছে হাফিজ-সঙ্গী জাফর ইকবালেরও।

পাঞ্জাব পুলিশের সন্ত্রাস-দমন বিভাগের আর্জিতে লাহোর এবং গুজরানওয়ালা শহরে দায়ের হওয়া মামলা দু’টিতে আদতে সাড়ে পাঁচ বছর করে মোট ১১ বছরের জেল হয়েছে হাফিজের। সঙ্গে মামলা-পিছু ১৫ হাজার টাকা জরিমানা। কিন্তু সাজা একই সঙ্গে চলবে বলে তা সাড়ে পাঁচ বছরই দাঁড়াচ্ছে বলে জানান বিচারপতি আরশাদ হুসেন ভুট্টো। সন্ত্রাসদমন আইনের বিভিন্ন ধারায় গত বছর ডিসেম্বরে হাফিজের বিরুদ্ধে ছ’টি মামলা দায়ের হয়েছে। প্রত্যেকটিতেই সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়ার অভিযোগ। হাফিজের আর্জি ছিল, ছ’টি মামলাকে একত্রে এনে রায় দেয়া হোক চূড়ান্ত শুনানি শেষে। মঙ্গলবার তার সেই আর্জিও মেনে নিয়েছিল লাহোরের আদালত। তার পরেও আজ তারা সাজা ঘোষণা করল।

প্রসঙ্গত, জইশের মতো চরমপন্থী সংগঠনগুলো সরকার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না এমন অভিযোগে গত বছর অক্টোবরে পাকিস্তানকে ‘ধূসর’ তালিকাভুক্ত করে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সমর্থনপুষ্ট আন্তর্জাতিক ওয়াচডগ সংস্থা এফএটিএফ। আগামী এপ্রিলের মধ্যে এই তালিকা থেকে বেরোতে না-পারলে পাকিস্তান ‘কালো’ তালিকাভুক্ত হয়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে ইরানের মতো তাদের উপরেও নানা আর্থিক নিষেধাজ্ঞা চাপতে পারে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের একের পর এক উন্নয়নমূলক পদক্ষেপে পাকিস্তানের জন্য ‘ধূসর’ তালিকা থেকে বের হয়ে আসা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। সূত্র: পাকিস্তান ট্রিবিউন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ