Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

মারহাবা এরদোগান পাকিস্তানের টুইটারজুড়ে জনপ্রিয় নেতা এরদোগান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

বৈশ্বিক রাজনৈতিক নেতাদের জনপ্রিয়তা নিয়ে একটি জরিপ করেছে গ্যালাপ ইন্টারন্যাশনাল। এতে সবচেয়ে জনপ্রিয় মুসলিম নেতা হিসেবে স‚চকে এগিয়ে রয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান। এছাড়াও বিশ্বের পঞ্চম জনপ্রিয় নেতা হলেন তিনি। বিশ্বের মুসলমানদের মধ্যে এরদোগানের যেখানে ৩০ শতাংশ, সেখানে সইদী সালমান বিন আবদুল আজিজের ২৫ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। আর ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির জনপ্রিয়তা ২১ শতাংশ। জরিপে দেখা গেছে, জার্মানির চ্যান্সেলর অঞ্জেলা মেরকেলের ৪৬ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। তারপরেই রয়েছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন। তার জনপ্রিয়তা ৪০ শতাংশ। এছাড়া রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ৩৬ শতাংশ, ট্রাম্পের ৩১ শতাংশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের পরেই ৩০ শতাংশ জনপ্রিয়তা নিয়ে পঞ্চম স্থানে তুরস্কের এরদোগান। ১৯৭৭ সালে ডা. জর্জ গ্যালাপ প্রথম জনপ্রিয়তার এই স‚চক নির্ণয় শুরু করেন। এরপর প্রতিবছরই শেষের দিকে গ্যালাপ ইন্টারন্যাশনাল এন্ড অফ ইয়ার সার্ভেই প্রকাশ করা হচ্ছে। চলতি বছরে বিশ্বের ৫০টি দেশে এই জরিপ করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী পঞ্চাশ হাজার ২৬১ জন জরিপে অংশ নিয়েছেন। প্রতিটি দেশ থেকে এক হাজার নারী-পুরুষ এই জরিপে প্রতিনিধিত্ব করেন। খবর নিউজ ইন্টারন্যাশনালের। অপরদিকে, বৃহস্পতিবার দুই দিনের সরকারি সফরে ইসলামাবাদে এসে পৌঁছান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়িপ এরদোগান। তিনি দেশটিতে পৌঁছানোর পর টুইটারে মারহাবা এরদোগান ট্রেন্ড চালু হয়েছে। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে ওয়েলকাম এরদোগান টু পাকিস্তান লিখছেন এরদোগান ভক্তরা। খবর তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি শাফাকের। হাজার হাজার টুইটার ও ফেসবুক ব্যবহারকারী টুইটারে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে মারহাবা এরদোগান ও ফেসবুকে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে ওয়েলকাম এরদোগান টু পাকিস্তান লিখেছেন। এছাড়া দেশটির বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এরদোগানকে স্বাগত জানিয়েছেন। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ সফরে দুই দেশের মধ্যে ঐতিহ্যবাহী সংহতি ও ঘনিষ্ঠতার প্রতি জোর দেয়া হয়েছে। এর আগে পাকিস্তান-তুরস্কের কৌশলগত অংশিদারিত্বের প্রতি জোর দেয়া হচ্ছে বলে জানায় পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সফরে এরদোগানের সঙ্গে তার মন্ত্রিসভার জ্যেষ্ঠ সদস্য, সরকারি কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ী নেতারা রয়েছেন। এতে পাকিস্তান-তুরস্ক উচ্চ পর্যায়ের কৌশলগত সহযোগিতা পরিষদের (এইচএলএসসিসি) ষষ্ঠ অধিবেশনে ইমরান খানের সঙ্গে তিনি সভাপতিত্ব করবেন। শনিবার পাকিস্তান পার্লামেন্টের একটি যৌথ অধিবেশনেও ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে এরদোগানের। এছাড়া পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও প্রেসিডেন্ট ডা. আরিফ আলভির সঙ্গে তিনি বৈঠক করবেন। নিউজ ইন্টারন্যাশনাল, ইয়েনি শাফাক।



 

Show all comments
  • Naysha Fathiha Nusrat ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৫ এএম says : 0
    এক সময় এই তুর্কীরা পৃথীবির ৩২ দেশ প্রায় ৭০০ বছর শাসন করেছিল....যার নাম ছিল উসমানী শাসন আমল বিশ্বে সব চেয়ে বেশী ইসলামি শাসনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিল.
    Total Reply(0) Reply
  • Mukhlesur Rahman ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৬ এএম says : 0
    হওয়াটা একদম স্বাভাবিক, উনি ঐরকমই যোগ্যতা সম্পন্ন ব্যক্তি।
    Total Reply(0) Reply
  • দেখা হলেই বলবো ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৭ এএম says : 0
    তুর্কী ( তুরস্ক) বর্তমানে বিশ্বের আইকন মুসলিম দেশ। আপনারা কি জানেন,,,? সেখানে ইউরোপীয় কালচার। ধর্ম নিরপক্ষতা দেশ। যে যার মত চলছে,, যার যার ধর্ম সে পালন করছে। আছে মানবতা, শিষ্টতা, সহনশীলতা, ধর্মীয়তা। শুধু একটা জিনস নেই। সেটা বাংলাদেশের মত এত মাওলানা, আলেম, ওয়াজ। তাই তারা কত সুখী। এতো বক্তা নেই, এতো ওয়াজ নেই, এতো ধর্ম নিয়ে রমা রমা ব্যবসা নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • Alamgir Hossain ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৭ এএম says : 0
    অামি অাবার দেখতে চাই অাগের শাসন
    Total Reply(0) Reply
  • Gazi Nayem ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৮ এএম says : 0
    দোয়া করি আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে এমন এক নেতা তৈরী হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • Nazrul Razu ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৮ এএম says : 0
    হে আল্লাহ তুমি এরদোয়ান কে ঈমানী হায়াত দান করো এবং যে তুর্কিরা খেলাফতের জিয়াফত করেছে তাদের হাতেই আবারো খেলাফতের সূচনা করো
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন