Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ১০ শাবান ১৪৪১ হিজরী

ঢাবিতে প্লাস্টিক বর্জ্য-মুক্ত ভালোবাসার ক্যাম্পাস ২০২০ কর্মসূচি পালন

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:৩২ পিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে পলিথিন ও প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করতে প্রাণিবিদ্যা বিভাগের উদ্যোগে 'প্লাস্টিক বর্জ্য-মুক্ত ভালোবাসার ক্যাম্পাস ২০২০' পালিত হয়েছে। 'প্লাস্টিক ব্যবহারে নিজের সচেতনতার পাশাপাশি সমাজের প্রত্যেক স্তরের মানুষকে সচেতন করা’ স্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল শুক্রবার তারা এ কর্মসূচি পালন করে।

“আমি বাংলাদেশের সচেতন নাগরিক হিসেবে, দেশের প্রকৃতি রক্ষায় এবং ভবিষ্যত পৃথিবীর জন্য দূষণ পরিহারে সর্বদা সচেষ্ট থাকব” শপথ বাক্য পাঠের মধ্য দিয়ে উক্ত কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। এ লক্ষ্যে বিভাগটির একঝাঁক তরুণ মেধাবী শিক্ষার্থী ৫টি দলে ভাগ হয়ে কার্জন হল, শহীদ মিনার, ভিসি-ভবন চত্ত্বর, কলাভবন, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী, টিএসসি,বাংলা একাডেমিসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে পলিথিন, প্লাস্টিক সংগ্রহের পাশাপাশি এর ব্যবহারের কুফল সম্পর্কে সচেতনতার বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন ক্যাম্পাসে আগত জনসাধারণের মধ্যে।

কর্সূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবি প্রো-ভিসি কবি ড.মুহাম্মদ সামাদ, জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. ইমদাদুল হক,

প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর হুমায়ুন রেজা খান, প্রক্টর প্রফেসর ড. এ. কে. এম. গোলাম রব্বানী এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এ. কে. এম. রফিক আহাম্মদ। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাবি নেচার কনজারভেশন ক্লাব, প্রাণিবিদ্যা বিভাগ এর অন্যতম উদ্যোক্তা ও বিভাগের অধ্যাপক ড.এম নিয়ামুল নাসের এবং অন্যান্য শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অতিথিবৃন্দ।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, আমরা প্রত্যেকে যদি আমাদের ভলোবাসার জায়গাগুলোকে ভালোবেসে পলিথিন প্লাস্টিকমুক্ত রাখতে পারি তবেই পৃথিবী নামক গ্রহটিকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য টিকিয়ে রাখা সম্ভব হবে। উ ল্লেখ্য ২০১৮ সালে প্রাণিবিদ্যা বিভাগে শিক্ষক শিক্ষার্থীরা এসব কর্মসূচি পালন করে আসছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাবি

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ