Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী

অভিযোগ গুরুতর

নাজিম বকাউল, ফরিদপুর থেকে | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ২৫ নম্বর সোতাশী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাদিরা বেগমের বিরুদ্ধে নকল সরবরাহসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ করেছে স্কুল পরিচালনা পর্ষদ ও এলাকাবাসী।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট ওই বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করা হয়। স্কুল পরিচালনা পর্ষদ ও এলাকাবাসীর অভিযোগ থেকে জানা যায়, এক যুগ ধরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন নাদিরা বেগম। দীর্ঘদিন একই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক থাকার কারণে তিনি শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন।
অভিযোগে আরো বলা হয়, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের অকারণে মারপিট, স্বজনপ্রীতি ও আর্থিক অনিয়মের সাথে তিনি জড়িত। গত বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ৪০ জন অংশ নিয়ে ১৫ জন ফেল করে। এছাড়াও তিনি তার ছেলেসহ বেশ কয়েকজন পরীক্ষার্থীকে নকল সরবরাহ করেন।
প্রশ্নপত্রের ফাঁকা অংশে প্রধান শিক্ষক নাদিরা বেগমের লেখা নকল অভিযোগপত্রের সাথে অভিযোগকারীরা সংযুক্ত করেছেন। নকল সরবরাহের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসায় অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। লিখিত অভিযোগে তাকে দ্রুত অপসারণের দাবি জানিয়েছেন তারা।
প্রধান শিক্ষক নাদিরা বেগম ওইসব অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। আপনারা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে খোঁজ নিতে পারেন।
বোয়ালমারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নার্গিস জাফরী বলেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর প্রেরিত অভিযোগপত্রের অনুলিপি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ডিজি, ইউএনও এবং আমি পেয়েছি। তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ


আরও
আরও পড়ুন