Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সুর পাল্টালেন সালাউদ্দিন

বাফুফে নির্বাচন

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) তিনবারের সভাপতি, দেশের কিংবদন্তী ফুটবলার কাজী মো. সালাউদ্দিন বলেছেন- ‘আমি আর বাফুফে সভাপতি পদে নির্বাচন করব না এটা কখনো বলিনি।’ গতকাল বিকেলে বাফুফে ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কথাটি বলেন তিনি। এদিন দুপুরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বাংলাদেশ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল সংগঠক পরিষদের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ক্লাব ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তরফদার মো. রুহুল আমিন ঘোষণা দেন- তিনি বাফুফের আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদে দাঁড়াবেন না। তার এই ঘোষণার পর বিকেলেই নির্বাহী কমিটির সদস্যদের পাশে রেখে সংবাদ সম্মেলন করেন সালাউদ্দিন। যেখানে তিনি আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া প্রসঙ্গে কথা বলেন।

আগামী এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত হবে বাফুফের নির্বাচন। তার উত্তাপ এখন থেকেই ছড়াচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচনী মাঠে থাকা তরফদার মো. রুহুল আমিন হঠাৎ করে সভাপতি পদে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিলেও বর্তমান সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন আগামী চার বছরের জন্য ফের এই পদে থাকতে চাইছেন। তিনি বলেন,‘এখন আমি বাফুফের সভাপতি আছি। এই পদে আবারও নির্বাচন করতে চাই। আমার এখনও কিছু কাজ বাকি আছে।’ তবে এবারের নির্বাচনে সালাউদ্দিনের প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সর্বশেষ ২০১৬ সালে নির্বাচিত হওয়ার পর সালাউদ্দিন মিডিয়াকে বলেছিলেন মেয়াদ শেষ (২০২০ সালে) হলে আর বাফুফে নির্বাচনে দাঁড়াবেন না। সংবাদ সম্মেলনে এমন কথা উঠলে বাফুফে সভাপতি সরাসরি বলেন, ‘এ কথা অনেকবার শুনেছি। আমি কখনো মিডিয়ায় এভাবে স্টেটমেন্ট দেইনি। আমি তৃতীয়বার বাফুফে সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর বলেছিলাম পরের বার দাঁড়াতেও পারি, নাও পারি। এখনো তাই বলতেছি। ভবিষ্যতেও তাই বলবো। দাঁড়াতেও পারি নাও পারি।’ সালাউদ্দিন আরো বলেন, ‘নির্বাচনে যে কেউ ইচ্ছা করলে দাঁড়াতে পারেন। এখানে কোনও বাধা নেই। যদি কেউ কোয়ালিফাইড হন তিনি দাঁড়াবেন।’

তরফদার মো. রুহুল আমিন প্রসঙ্গে সালাউদ্দিন বলেন,‘আমাকে উনি হয়তো ভুল বুঝেছেন। নির্বাচনের ব্যাপারে তিনি আমার সঙ্গেও কথা বলেছিলেন। তখন বলেছিলাম আমি দাঁড়াবো। কারণ আমার আরো কিছু কাজ বাকি আছে। দ্বিতীয়ত উনি (তরফদার) বলেছেন, ফুটবলের ভালোর জন্য উনি দাঁড়াবেন না। রাইট। কাদা ছোড়াছুড়ির ব্যাপারটা আমি জানি না। কারণ আমি সর্বশেষ আড়াই-তিন বছর কোনো বিবৃতি দেইনি। সুতরাং এই কথা আমি মানতে পারলাম না।’

রুহুল আমিনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বাফুফে সভাপতি আরো বলেন,‘উনি বলেছেন ফুটবলের স্বার্থের জন্য উনি দাঁড়াবেন না। রাইট। আমি উনাকে ধন্যবাদ জানাই যে আমার ওপর উনার এই আস্থাটা আছে বলে। সর্বোপরি আমার এটাই বলার আছে, তিনি আমার সঙ্গে কাজ করেছেন। এখনো তাই। উনার সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত কোনো শত্রæতা নেই।’ ভবিষ্যতে রুহুল আমিনের সঙ্গে কাজ করার কোনও সুযোগ আছে কিনা? এমন প্রশ্নে সালাউদ্দিনের উত্তর, ‘এই মুহূর্তে আমি কোনো প্রতিশ্রæতি দিতে পারছি না। ফুটবলে কেউ যদি কাজ করতে চায় করবে। সবাইকে স্বাগত এখানে। আমি সাইফকে এনেছিলাম কাজ করতে, বসুন্ধরাকে এনেছি। সবাইকে নিয়ে কাজ করা আমার উদ্দেশ্য। এটা কোনো ক্লাব না। আমরা জাতির জন্য কাজ করছি।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ