Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, ০২ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

মুসলিম কবরের উপরই কি রামমন্দির হবে? প্রশ্ন অযোধ্যার সংখ্যালঘুদের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

অযোধ্যায় তৈরি হবে রামমন্দির। প্রধানমন্ত্রী মোদি সংসদে মন্দির নির্মাণের জন্য রামজন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের ঘোষণা করেছেন। সেই ট্রাস্টের হাতে পাওয়া একটি চিঠিই ঘিরেই বিতর্ক তৈরি হয়েছে। অযোধ্যার স্থানীয় ৯টি সংখ্যালঘু পরিবারের দাবি, ১৮৫৫ সালে ওই বাবরি মসজিদ এলাকায় ছিল মুসলিমদের কবরস্থান। তাই কবরস্থানের উপর কি রাম মন্দির গড়ে তোলা উচিত? এই প্রশ্নই করা হয়েছে ওই চিঠিতে।

সংখ্যালঘু মুসলমানদের দাবি, ওই এলাকায় ৪ থেকে ৫ একর জমি ছিল মুসলিম কবরস্থান। আর সেখানে যাতে রাম মন্দির তৈরি না হয়, তার জন্য আবেদন করা হয়েছে, ওই চিঠিতে। এই চিঠি তারা সোজাসুজি পাঠিয়েছেন রাম মন্দির ট্রাস্টের কাছে।
স্থানীয়দের তরফের আইনজীবী এমআর শমশাদের দাবি, ১৮৫৫ সালের দাঙ্গায় ওই এলাকায় ৭৫ জন মুসলিমকে হত্যা হয়। আর এই ৪ থেকে ৫ একর জমিতে সেই মুসলিমদের দাফন করা হয়েছিল। এমন কবরস্থানে মন্দির নির্মাণ ঘিরে যেমন প্রশ্ন উঠছে, তেমনই আইনজীবীর দাবি, যে জায়গায় মুসলিমদের কবরস্থান- তার অধিকারও মুসলিমদেরই। ফলে রাম মন্দির এলাকার মালিকানা ঘিরেও চিঠিতে প্রশ্ন তোলা হয়েছে।
এদিকে, ১৯৯৪ সালের ইসমাইল ফারুকি মামলায় সুপ্রিমকোর্ট জানিয়েছে, মসজিদ বনাম রাম মন্দির মামলায় মূল জটিলতা ১৪৮০ স্কোয়ারফিট ঘিরে। যা সুপ্রিমকোর্ট নিষ্পত্তি করেছে ২০১৯ সালে। ওদিকে, বাবরি মসজিদের চারপাশে যে কবরস্থান রয়েছে, তার সপক্ষেও একাধিক যুক্তি দিয়েছেন স্থানীয়দের তরফের আইনজীবী। সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ