Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ১০ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

রাজপরিবারে ফের বিচ্ছেদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ব্রিটিশ রাজপরিবারে আবারও বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটল। এবার বিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের বোনের ছেলে ডেভিড আর্মস্ট্রং-জোন্স এবং তার স্ত্রী সেরেনা। এর আগে গত সপ্তাহে বিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের নাতি পিটার ফিলিপস ও তার স্ত্রী অটাম।

রানির একমাত্র বোন প্রিন্সেস মার্গারেটের ছেলে ৫৮ বছর বয়সী ডেভিড। তার বাবা প্রথম দ্য আর্ল অব স্নোডন অ্যান্থনি আর্মস্ট্রং-জোন্স ছিলেন একজন ফটোগ্রাফার। ডেভিডের রাজকীয় উপাধি দ্য আর্ল অব স্নোডন দ্বিতীয় এবং তার স্ত্রী সেরেনার কাউন্টেস অব স্নোডন। রাজপরিবারের ২১তম উত্তরাধিকারী তিনি।
ডেভিড-সেরেনার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, দ্য আর্ল এবং কাউন্টেস অব স্নোডেন তাদের ২৬ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি ঘোষণা করছেন এবং তারা বিচ্ছেদের বিষয়ে একমত হয়েছেন। জানা গেছে, বেশ কয়েক মাস আগেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন নিয়েছিলেন তারা। তবে ঘোষণা দিতে রানির সম্মতির জন্য অপেক্ষা করছিলেন তারা।
গত সপ্তাহে বিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেয়া পিটার ফিলিপস রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ-প্রিন্স ফিলিপ দম্পতির সবচেয়ে বড় নাতি। প্রিন্সেস রয়্যাল অ্যানি এবং তার প্রথম স্বামী ক্যাপ্টেন মার্ক ফিলিপসের একমাত্র পুত্রসন্তান তিনি। গত মাসে প্রিন্স হ্যারি-ম্যাগানের রাজপরিবার ছাড়ার সিদ্ধান্তে মর্মাহত ব্রিটিশ রাজপরিবার। এর মধ্যে দুই বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটল।
এর আগে ব্রিটিশ রাজপরিবারে সবচেয়ে আলোচিত বিয়ে বিচ্ছেদ ছিল প্রিন্স চার্লস এবং প্রিন্সেস ডায়ানার। ১৯৯৬ সালে তাদের পনেরো বছরের দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনের অবসান ঘটে। পরের বছরেই এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রেমিক দোদি আল ফায়েদসহ নিহত হন ডায়ানা। সূত্র : ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিচ্ছেদ

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ