Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪১ হিজরী

পাকিস্তানের পিএসএল ‘পরীক্ষা ’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

পাকিস্তান, পিএসএল, ক্রিকেট
পাকিস্তানের ক্রিকেটপাগল ভক্তদের এই প্রথম হয়তো ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগ পাকিস্তান সুপার লিগকে (পিএসএল) ‘আপন’ মনে হবে! নিজেদের টুর্নামেন্ট নিজেদের উঠোনে না হলে সেটিতো অতিথিই! এত দিন পাকিস্তানের মানুষের হয়তো তেমনই মনে হয়েছে। নামে পাকিস্তান সুপার লিগ, কিন্তু দেশটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনে অনেক ঝামেলা আছে বলে টুর্নামেন্টের আগের চার আসরের প্রতিটিই হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। শুধু গতবার কয়েকটি ম্যাচ হয়েছে পাকিস্তানের করাচিতে, এর আগের বার ফাইনালটিও হয়েছিল সেখানেই।

তবে এবার পরিস্থিতি বদলে গেছে। এবারই প্রথম পাকিস্তানের মাটিতেই হবে পুরো পিএসএল। ‘অতিথি’ বরণে তাই কোনো কার্পণ্য করছে না পিসিবি। বর্ণিল এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজনই রেখেছে আসরকে রাঙাতে। বর্তমান শিরোপাধারী কোয়েটা গøাডিয়ের্স বনাম দুইবারের চ্যাম্পিয়ন ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে পঞ্চম পিএসএলের। করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামে পূর্ব নির্ধারিত রাত ৮টায় ম্যাচ শুরু হবার কথা থাকলেও উদ্বোধনীয় অনুষ্ঠানের কারণে পিছিয়ে ১০টায় হবে বলে জানিয়েছে দেশটির প্রভাবশালী পত্রিকা ‘ডন’। এই সময়ে প্রায় এক ঘন্টার এক সুর আর সঙ্গীতের ছন্দে বেঁধে রাখার আয়োজনে সাড়ে ৩শ’ পারফরমার মাতাবেন মঞ্চ। সবচাইতে বড় চমক হিসেবে থাকছেন উপমহাদেশের সুফী গানের পুরধা নুসরাত ফতেহ আলী খানের পুত্র রাহাত ফতেহ আলী খান। সবশেষ আকর্ষণ হিসেবে আতশবাজী তো থাকছেই!

আগামীকাল শুরু হয়ে ২২ মার্চ পর্যন্ত একমাসেরও বেশি সময় ধরে চলবে এই টুর্নামেন্ট। লাহোর, করাচি, রাওয়ালপিন্ডি ও মুলতান-এই চারটি শহরে হবে ম্যাচগুলো। দল ছয়টি-ইসলামাবাদ ইউনাইটেড, করাচি কিংস, লাহোর কালান্দার্স, মুলতান সুলতানস, পেশোয়ার জালমি ও কোয়েটা গø্যাডিয়েটর্স। গ্রæপে ৩০টি ম্যাচের পর ফাইনাল পর্যন্ত নকআউট পর্বে ম্যাচ ৪টি- সবমিলিয়ে মোট ৩৪টি ম্যাচের জমজমাট এই আসরের পুরোটাই উপেভোগের জন্য প্রস্তুত ক্রিকেটপাগল পাকিস্তানিরাও।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার টিম বাসে হামলার পর থেকে ক্রিকেট এক প্রকার নির্বাসিতই ছিল পাকিস্তানে। তবে গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ের মতো দলগুলো পাকিস্তান সফরে যাওয়ায় দেশটির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনের দাবি বেড়েছে। এই দলগুলোর বাইরে অনেক তারকাদের নিয়ে গড়া বিশ্ব একাদশ তিন তিনটি টি-টোয়েন্টিও খেলেছে পাকিস্তানে। ক্রিকেটের আইনপ্রণেতা সংস্থা মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) ১২ জনের একটি দল চারটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে এই মুহ‚র্তে আছে পাকিস্তান সফরে, যে দলের অধিনায়ক এমসিসি সভাপতি ও শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারা। পিএসএল নিজেদের মাটিতে আয়োজনের সাহস তাই করতেই পারে পাকিস্তান। এসব ঘটনা এককভাবে পিএসএল আয়োজনের পক্ষে সিদ্ধান্ত নিতে সাহস যুগিয়েছে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানি, ‘ঘরের মাঠে টেস্ট ক্রিকেট ফেরানোর পর সম্প‚র্ণ পিএসএল আয়োজন আমাদের বড় সাফল্য। এটা পাকিস্তানের লিগ এবং ঘরের মাঠের দর্শকদের সামনেই এটা খেলা উচিত। ক্রিকেটের জন্য পাকিস্তান যে এখন অনেক নিরাপদ, বিশ্বকে জানানোর এর চাইতে বড় সুযোগ আর হতে পারে না।’

পিসিবি সভাপতিকে আরও একটু উজ্জ্বীবিত করেছে সাঙ্গাকারার বক্তব্য, ‘নিরাপত্তা ইস্যু বিশ্বের সবখানেই আছে। শুধু পাকিস্তানে নয়। বেশ কয়েক বছর ধরে যে পদক্ষেপ তারা (পাকিস্তান) নিয়েছে, তাতে পরিবেশ অনেক উন্নত হয়েছে। তাদের (পিসিবি) আত্মবিশ্বাসও তুঙ্গে পৌঁছেছে।’

পাকিস্তানের ঘরোয়া এই আসরে ৬টি ফ্র্যাঞ্চাইজিতে থাকবে মোট ৩৬ জন বিদেশি খেলোয়াড়। পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বিদেশি খেলোয়াড়দের আগমনকে দেখছেন ইতিবাচক হিসেবে, ‘বিদেশি খেলোয়াড়দের আগমন আমাদের জন্য একটি বড় বোনাস। তারা বিশ্বাস করে এখানে (পাকিস্তান) চার-পাঁচ সপ্তাহ নিরাপত্তায় কোন ঘাটতি হবে না।’ দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইন নাম লিখিয়েছেন পিএসএলে। তার টুইটারের একটি ভিডিও পোস্ট দেখে মনে হচ্ছে যেন তর সইছে না তার। তিনি ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘দ্রæত আসছি, পাকিস্তান।’

পাকিস্তানে আয়োজন বলে টুর্নামেন্টে তারকার কমতি কিন্তু কম নেই। তবে এবারের এ আসরে খেলছে না কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের। বাংলাদেশ-পাকিস্তান প‚র্ণাঙ্গ সিরিজ এখনো শেষ হয়নি। তিনটি টি-টোয়েন্টি ও একটি টেস্ট খেলা হয়েছে। মাঝখানে পিএসএলের আয়োজনের কারণে সিরিজের বাকি অংশ অনুষ্ঠিত হবে এপ্রিলে। এদিকে পাকিস্তান সফরের মাঝে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে। ফলে পাকিস্তান সুপার লিগে অংশগ্রহণের জন্য বাংলাদেশি কোনো খেলোয়াড় পাকিস্তান যেতে পারছেন না। এছাড়া নিরাপত্তার কারণে বেশ কয়েকজন টাইগার নিলামের সময় তাদের নাম প্রত্যাহারও করে নিয়েছিলেন।

পিএসএলে এবার সর্বমোট প্রাইজমানি ঘোষনা করা হয়েছে দশ লক্ষ ডলার। টুর্নামেন্টে বিজয়ী দল পাবে পাঁচ লক্ষ ডলার, রানার্সআপ দল পাবে দুই লক্ষ ডলার। মোট ৩৪টি খেলায় প্রতি ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়কে দেয়া হবে সাড়ে চার হাজার ডলার। এছাড়া টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়, সেরা ব্যাটসম্যান, সেরা বোলার এবং স্পিরিট অব ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ডের পেছনে ব্যয় দেখানো হয়েছে আশি হাজার ডলার। নগদ পুরস্কারের জন্য সেরা ক্যাচ, রানআউট, সর্বোচ্চ ছক্কাও অর্ন্তভুক্ত থাকবে।

পিএসএলে কোন দলে কারা
ইসলামাবাদ ইউনাইটেড : শাদাব খান (অধিনায়ক), আহমেদ শাফি আবদুল্লাহ, আকিফ জাভেদ, আমাদ বাট, অসিফ আলী, ফাহিম আশরাফ, হুসেন তালাত, কলিন ইনগ্রাম, ডেভিড মালান, মুহাম্মদ মূসা, কলিন মুনরো, রিজওয়ান হোসেন, লুক রনকি, রুম্মন রইস, সাইফ বাদার, ফিল সল্ট, ডেল স্টেইন, জাফর গোহার, র‌্যাসি ফন ডার ডুসেন।

করাচি কিংস : ইমাদ ওয়াসিম (অধিনায়ক), আমির ইয়ামিন, আলি খান, আরশাদ ইকবাল, আওয়াইস জিয়া, বাবর আজম, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, অ্যালেক্স হেলস, ইফতেখার আহমেদ, ক্রিস জর্ডান, মিচেল ম্যাকঘøান, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ রিজওয়ান, শারজিল খান, উমাইদ আসিফ, উমর খান, উসামা মির, চাদউইক ওয়ালটন, ড্যান লরেন্স, লিয়াম প্লাঙ্কেট।

লাহোর কালান্দার্স : সোহেল আকতার (অধিনায়ক), দিলবার হুসেন, বেন ডাঙ্ক, ফাইজান খান, ফখর জামান, হারিস রাউফ, জাহিদ আলি, ক্রিস লিন, মোহাম্মদ হাফিজ, সামিত প্যাটেল, সিকুজে প্রসন্ন, রাজা ফারজান, সালমান বাট, শাহীন শাহ আফ্রিদি, উসমান শেনওয়ারি, ড্যান ভিলাস, ডেভিড ওয়াইস, লেন্ডেল সিমন্স।

মুলতান সুলতানস : শান মাসুদ (অধিনায়ক), শহীদ আফ্রিদি, মোহাম্মদ ইরফান, জেমস ভিন্স, জুনায়েদ খান, মইন আলি, রিলে রুশো, জিশান আশরাফ, রবি বোপারা, সোহেল তানভীর, আলি শফিক, খুশদিল শাহ, উসমান কাদির, ফাবিয়ান আলিন, মোহাম্মদ ইলিয়াস, রোহাইল নাজির, ইমরান তাহির, বিলওয়াল ভাট্টি, ওয়েন ম্যাডসেন।

পেশোয়ার জালমি : ড্যারেন স্যামি (অধিনায়ক), হাসান আলি,কাইরান পোলার্ড, ওয়াহাব রিয়াজ, কামরান আকমল, ইমাম-উল-হক, উমর আমিন, টম ব্যান্টন, শোয়েব মালিক, লিয়াম ড্যাসন, মোহাম্মদ মহসিন, রাহাত আলি, লুইস গ্রেগরি, আদিল আমিন, আমির খান, আমির আলি, লিয়াম লিভিংস্টোন, হায়দার আলি, কার্লোস ব্যাথওয়েট।

কোয়েটা গø্যাডিয়েটর্স : সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নওয়াজ, শেন ওয়াটসন, আহমেদ শেহজাদ, উমর আকমল, মোহাম্মদ হাসনাইন, আসহান আলি, নাসিম শাহ, জেসন রয়, বেন কাটিং, ফাওয়াদ আহমেদ, সোহেল খান, টাইমাল মিলস, আবদুল নাসির, আরিস আলি খান, আজম খান, কিমো পল, খুররাম মনজুর, জাহিদ মেহমুদ।

পাকিস্তান সুপার লিগের পূর্ণাঙ্গ সূচি
তারিখ সময়* ম্যাচ ভেন্যু
২০ ফেব্রæ. রাত ৮টা ইসলামাবাদ-কোয়েটা করাচি
২১ ফেব্রæ. বেলা ৩টা করাচি-পেশোয়ার করাচি
” রাত ৮টা লাহোর-মুলতান লাহোর
২২ ফেব্রæ. বেলা ৩টা পেশোয়ার-কোয়েটা করাচি
” রাত ৮টা ইসলামাবাদ-মুলতান লাহোর
২৩ ফেব্রæ. বেলা ৩টা করাচি-কোয়েটা করাচি
” রাত ৮টা লাহোর-ইসলামাবাদ লাহোর
২৬ ফেব্রæ. রাত ৮টা মুলতান-পোশোয়ার মুলতান
২৭ ফেব্রæ. রাত ৮টা ইসলামাবাদ-কোয়েটা রাওয়ালপিন্ডি
২৮ ফেব্রæ. বেলা ৩টা মুলতান-করাচি মুলতান
” রাত ৮টা লাহোর-পেশোয়ার রাওয়ালপিন্ডি
২৯ ফেব্রæ. বেলা ৩টা মুলতান-কোয়েটা মুলতান
” রাত ৮টা ইসলামাবাদ-পেশোয়ার রাওয়ালপিন্ডি
০১ মার্চ রাত ৮টা ইসলামাবাদ-করাচি রাওয়ালপিন্ডি
০২ মার্চ রাত ৮টা করাচি-পেশোয়ার রাওয়ালপিন্ডি
০৩ মার্চ রাত ৮টা লাহোর-কোয়েটা লাহোর
০৪ মার্চ রাত ৮টা লাহোর-ইসলামাবাদ লাহোর
০৫ মার্চ রাত ৮টা পেশোয়ার-কোয়েটা রাওয়ালপিন্ডি
০৬ মার্চ রাত ৮টা করাচি-মুলতান লাহোর
০৭ মার্চ বেলা ৩টা ইসলামাবাদ-পেশোয়ার রাওয়ালপিন্ডি
” রাত ৮টা লাহোর-কোয়েটা লাহোর
০৮ মার্চ বেলা ৩টা ইসলামাবাদ-মুলতান রাওয়ালপিন্ডি
” রাত ৮টা লাহোর-করাচি লাহোর
১০ মার্চ রাত ৮টা লাহোর-পেশোয়ার লাহোর
১১ মার্চ রাত ৮টা মুলতান-কোয়েটা লাহোর
১২ মার্চ রাত ৮টা করাচি-লাহোর করাচি
১৩ মার্চ রাত ৮টা মুলতান-পেশোয়ার করাচি
১৪ মার্চ রাত ৮টা করাচি-ইসলামাবাদ করাচি
১৫ মার্চ বেলা ৩টা লাহোর-মুলতান লাহোর
” রাত ৮টা করাচি-কোয়েটা করাচি
১৭ মার্চ রাত ৮টা কোয়ালিফায়ার করাচি
১৮ মার্চ রাত ৮টা এলিমিনেটর-১ লাহোর
২০ মার্চ রাত ৮টা এলিমিনেটর-২ লাহোর
২২ মার্চ রাত ৮টা ফাইনাল লাহোর
*বাংলাদেশ সময়, সরাসরি জিটিভি

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন