Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বরিশালে স্টিমার-লঞ্চ মুখোমুখি সংঘর্ষে ৫ যাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নাছিম উল আলম : ঈদের ঘরমুখি বিপুলসংখ্যক যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে চাঁদপুর হয়ে বরিশাল আসার পথে বিআইডবিøউটিসি’র রকেট স্টিমার ‘পিএস মাহসুদ’ বিপরিত দিক থেকে আসা বেসরকারী নৌযান এমভি সুরভী-৭’র সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচ যাত্রী নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। আহতদের বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত নৌযানটিকে বিআইডবিøউটিএ’র টাগ ‘এমটি দুর্বার’-এর সাহায্যে সকাল ৯টায় বরিশাল বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দু’জন বাদে নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। অজ্ঞাত নিহতদের লাশে মর্গে রাখা হয়েছে। এনিয়ে গত ছয় মাসে পিএস মাহসুদ ছোট বড় অন্তত ৮টি দুর্ঘটনার শিকার হলেও দায়ীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বিআইডবিøউটিসি। পিএস মাহসুদ-এর দুর্ঘটনায় ঘাতক নৌযান ‘এমভি সুরভী-৭’-এর চলাচল স্থগিত করেছে বিআইডবিøউটিএ। এ ঘটনা তদন্তে সমুদ্র পরিবহন অধিদফতর চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলেছে। তদন্ত কমিটিতে সমুদ্র পরিবহন অধিদফতর ছাড়াও বিআইডবিøউটিএ এবং আইডবিøউটিসি’র প্রতিনিধিও থাকবে বলে জানা গেছে। এব্যাপারে কোতয়ালী থানায় সাধারণ ডায়েরী ছাড়াও এফআইআর দায়ের করেছে বিআইডবিøউটিসি।
নিহতদের দু’জনের বাড়ী ঝালকাঠী ও বাগেরহাটে। খবর পেয়েই বিআইডবিøউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর মোজাম্মেল হক বরিশালে পৌঁছে দুর্ঘটনাকবলিত নৌযানটি সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করেন। তিনি হাসাপাতালেও আহতদের দেখতে যান। বিআইডবিøউটিসি’র চেয়ারমান অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান দুপুরে বরিশালে পৌঁছে হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান। তিনি তাদের চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজ-খবর নিতে সংস্থার কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। পরে তিনি দুর্ঘটনাকবলিত নৌযানটি পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি ইনকিলাবকে জানান, আমি আসার পরে চেষ্টা করছিলাম শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এসব নৌযান সংরক্ষণ করতে। কিন্তু পিএস মাহসুদ-এর এতবড় দুর্ঘটনা আমাদের চরমভাবে হতাশ করেছে। তদন্ত সম্পন্ন করার পরেই দুর্ঘটনাকবলিত নৌযানটি মেরামতে হাত দেয়া হবে বলে জানান তিনি। তবে ঠিক কবে নাগাদ নৌযানটি সচল করা সম্ভব হবে তা এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না বলে জানান চেয়ারম্যান। সংস্থাটির অপর প্যাডেল জাহাজ ‘পিএস টার্ণ’ও ভাড়ী মেরামতে ডকইয়ার্ডে রয়েছে। গতকালের দুর্ঘটনার ফলে ৪টি প্যাডেল জাহাজের দুটিই বন্ধ হয়ে গেল। ফলে সংস্থার ঈদ যাত্রী পরিবহন চরম সংকটে পড়ল।
রবিবার সন্ধায় ঢাকা থেকে নিয়মিত রকেট সার্ভিসের যাত্রী নিয়ে চাঁদপুর-বরিশালের উদ্যেশ্যে যাত্রা করে পিএস মাহসুদ। গতকাল রাত ৪টার দিকে পিএস মাহসুদ বরিশাল বন্দরের অদূরে কির্তনখোলা নদী দিয়ে চরবাড়ীয়া ও পশুরীকাঠী এলাকা অতিক্রমকালে বরিশাল থেকে ঢাকামুখি ‘এমভি সুরভী-৭’ নৌযানটির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। পিএস মাহসুদ-এর একাধীক যাত্রী ও কর্মীদের মতে এমভি সুরভী-৭ নৌযানটিকে অনেক দূর থেকেই সংকত দিচ্ছিল মাহসুদ-এর কাপ্তেন। হুইসাল বাজান ছাড়াও মাইক দিয়ে পর্যন্ত বার বার সতর্ক করার পরেও সুরভী’র চালক নৌযানটিকে নিরপদ দুরত্বে না নিয়ে মাহসুদ-এর গায়ে আছড়ে পরে। একপর্যায়ে মাহসুদ-এর ইঞ্জিনও বন্ধ করে দেয়া হয় সম্ভাব্য দুর্ঘটনা এড়াতে। পিএস মাহসুদে পিরোজপুর-৩ আসেনর এমপি ডাঃ রুস্ম আলী ফরাজীও ভ্রমণ করছিরেন। তিনি নৌযানটির প্রথম শ্রেণীর সামনের লনে ফজরের নামাজ আদায়কালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি নিজেও পড়ে গিয়ে সামান্য আঘাত পেয়েছেন। সুরভী-৭ রবিবার সন্ধায় ঢাকা থেকে যাত্রী বোঝাই করে মধ্যরাতের পরে বরিশালে পৌঁছে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে ঢাকায় ফিরছিল ডবল ট্রিপ ধরতে। কিন্তু বরিশাল বন্দর ত্যাগ করার পনের মিনিটের মাথায়ই নৌযানটি যাত্রী বোঝাই পিএস মাহসুদ-এর ওপর সজোর আঘাত করে। গতকাল দুপুরে বিআইডবিøউটিএ’র চলাচল স্থগিত করে দিয়েছে।
এ দুর্ঘটনায় পিএস মাহসুদ-এর বাম পাসের মধ্যবর্তী স্থান থেকে প্রায় ৬০ফুট এলাকা দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। দুর্ঘটনায় মাহসুদ-এর লোয়ার ডেকের বাম পাসের ৪-৫টি ক্রু-কেবিনসহ প্যাডেলের বেশীরভাগই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নৌযানটির প্রথম শ্রেণীর বামে পাশের ৪ নম্বর কক্ষ থেকে ১২ নম্বর পর্যন্ত সবগুলোই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত যাত্রীদের প্রায় সকলেই লোয়ার ডেকের বাম পাশের ক্রু-কেবিনগুলোতে ভ্রমণ করছিল। আহতদেরও প্রায় সকলে লোয়ার ডেকের বাম পাশে যাত্রী ছিলেন। প্রথম শ্রেণীর কেবিনগুলোর কয়েকজন যাত্রীও কম-বেশী আহত হয়েছেন।
দুর্ঘটনার খবর পাবার সাথেই বিআইডবিøউটিসির বরিশাল অঞ্চলের এজিএম দ্রæত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে দ্রæত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান হয়। সংস্থার অপর নৌযান এমভি মধুমতি’তে করে মাহসুদ-এর যাত্রীদের উদ্ধার করে বরিশাল হয়ে ঝালকাঠী-পিরোজপুর থেক বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে পাঠান হয়েছে।



 

Show all comments
  • মাসুম সরকার ৫ জুলাই, ২০১৬, ১২:৪৫ পিএম says : 0
    ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন|
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ