Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪১ হিজরী

কোরআন-সুন্নাহর খাঁটি অনুসরণেই শান্তি ও মুক্তি -আখেরী মুনাজাত পূর্ব বক্তব্যে পীর ছাহেব ছারছীনা

আমড়াগাছিয়া থেকে সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০৩ এএম

আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ বলেছেন, বিশ^ব্যাপী মুসলমানরা আজ নির্যাতিত ও নিপীড়িত। অমুসলিমদের কাছে তারা আজ অসহায়। সততা, নৈতিকতা ও ন্যায়ের পথ ছেড়ে কোরআন সুন্নাহর পথ পরিহার করে তারা মানবরচিত পথে জীবন পরিচালনা করছে। এজন্যই আজ মুসলমানদের এহেন করুণ অবস্থা। এর থেকে মুক্তি পেতে হলে মুসলমানদের অবশ্যই কোরআন-সুন্নাহর খাঁটি অনুসারী হতে হবে। তাহলেই দুনিয়াতে শান্তি ও পরকালে মুক্তি পাওয়া যাবে।
তিনি আরও বলেন, মহানবী (সা.) শেষ নবী। তার পরে আর কোনও নবী আসবেন না। অতএব নবী দাবিদার কাদিয়ানীরা সুস্পষ্ট কাফের। তাই এ বিশাল মাহফিল থেকে কাদিয়ানীদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার জন্য তিনি সরকারের কাছে জোর দাবি জানান।
তিনি আরও বলেন, আপনারা আপনাদের সন্তানদেরকে আদর্শ ও নেক সন্তান হিসেবে গড়ে তোলার জন্য এবং পরকালীন নাজাতের জন্য দ্বীনিয়ার শিক্ষায় শিক্ষিত করুন। নিজে যেমন হক্ব দরবার ছারছীনায় এসে আল্লাহ ও তাঁর রসূলকে পাওয়ার সর্বোত্তম কাজে রত আছেন, তেমনি নিজ সন্তানকে এ হক্ব পথে চলতে, এর সাথে আমরণ জড়িত থাকতে প্রয়োজনে সবাই সন্তানকে লিখিত অসিয়ত করে যাবেন।
পীর ছাহেব মাহফিলে আগত সকলকে খাঁটি তাওবা করান এবং আমলী জিন্দেগী গঠনের মাধ্যমে সিরাতুল মোস্তাকিমের পথে জীবন পরিচালনা করার আহবান জানান।
গতকাল বাদ জুম’আ বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলাধীন আমড়াগাছিয়া হুসাইনপুরস্থ খানকায়ে ছালেহিয়া কমপ্লেক্সের তিনদিনব্যাপী মাহফিলের শেষদিন আখেরী মুনাজাতের পূর্বে একথা বলেন।
মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম সরোয়ার ফোরকান, স্বরূপকাঠী পৌরসভার মেয়র গোলাম কবির, আমতলী কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব মাও. আবু জাফর মোহাম্মদ শামসুদ্দোহা, আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তালুকদার এ. কে. এম নূরুল হক প্রমুখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছারছীনা শরীফ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ