Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১০ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

নিরীক্ষা দাবির হাজার কোটি টাকা দিয়েছে গ্রামীণফোন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

নিরীক্ষা দাবির এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করেছে মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ি গতকাল রোববার অপারেটরটি টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (বিটিআরসি) কাছে এই অর্থ প্রদান করে। বিটিআরসি কার্যালয়ে বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হকের কাছে টাকার পে-অর্ডার তুলে দেন গ্রামীণফোনের হেড অফ রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স হোসেন সাদাত। বিটিআরসির চেয়ারমান বলেন, গ্রামীণফোনকে ধন্যবাদ। তারা আদালতের নির্দেশ মেনে এক হাজার কোটি টাকা জমা দিয়েছে। তাদের সঙ্গে আমাদের কোনো ধরনের মনমালিন্য নেই। গ্রামীণফোনের কাছে নিরীক্ষা আপত্তির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকার পাশাপাশি রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা দাবি করেছে বিটিআরসি। এই টাকা আদায়ে প্রথম ধাপে ব্যান্ডউইডথ কমিয়ে দিয়ে এবং দ্বিতীয় ধাপে অনাপত্তিপত্র দেওয়া বন্ধ করে দেয় কমিশন। তাতেও কাজ না হওয়ায় গতবছর ৫ সেপ্টেম্বর লাইসেন্স বাতিলের হুমকি দিয়ে দুই অপারেটরকে নোটিস পাঠায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এমনকি বিটিআরসি চেয়ারম্যান প্রয়োজনে গ্রামীণফোনে প্রশাসক নিয়োগের কথাও বলেন।

বিটিআরসি সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তিতে রাজি না হওয়ায় গ্রামীণফোন গতবছর আদালতের দ্বারস্থ হয়। পরে অর্থমন্ত্রীর উদ্যোগে গ্রামীণফোন ও বিটিআরসির কর্মকর্তাদের মধ্যে দুই দফা বৈঠক হলেও তাতে সফলতা আসেনি। গ্রামীণফোনের আবেদনে গত ১৭ অক্টোবর বিটিআরসির নিরীক্ষা আপত্তি দাবির নোটিসের ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা দেয় হাই কোর্ট। বিটিআরসি লিভ টু আপিল করলে আপিল বিভাগ ২৪ নভেম্বর গ্রামীণফোনকে দুই হাজার কোটি টাকা দিতে নির্দেশ দেয়। সেজন্য তাদের দেওয়া হয়েছিল তিন মাস সময়, যা সোমবার শেষ হচ্ছে। তার আগেই গত ২৬ জানুয়ারি সর্বোচ্চ আদালতের ওই আদেশ পুনর্বিবেচনার আবেদন করে গ্রামীণফোন। সে বিষয়ে শুনানি করে আপিল বিভাগ বুধবার বলে, দুই হাজার কোটি টাকা গ্রামীণফোনকে দিতেই হবে। তার মধ্যে এক হাজার কোটি টাকা সোমবারের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। এ বিষয়ে সোমবার পরবর্তী আদেশ দেওয়া হবে।

আদালতের ওই আদেশের পর বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক সাংবাদিকদের বলেছিলেন, আমার যতটুকু মনে হয় টাকাটা তারা দিয়ে দেবে, যদি না দেয় আইন যেসব ক্ষমতা বিটিআরসিকে দিয়েছে বিটিআরসি কখনও কোনো বেআইনি কাজ করে না, করবেও না। এরপর টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে শুক্রবার এক বিবৃতি দেয় গ্রামীণফোন।###



 

Show all comments
  • রবিউল আলম নওশাদ লিটন ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০৭ এএম says : 0
    সরকার এর পাওনা টাকা না দিলে সরকার দেশ চালাবে কিভাবে।আদালত বিটিআরসি ও গ্রামীণ ফোনকে ধন্যবাদ ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রামীণফোন

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ