Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ওয়াটফোর্ডকে হারিয়ে পাঁচে উঠল ম্যানইউ

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:১৩ এএম

ম্যাচ শুরুর আগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছিল প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলের সাতে। তবে ঘরের মাঠে ওয়াফোর্ডের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জিতে দুই ধাপ এগিয়ে পাঁচে উঠে এল উলে গুনার সুলশারের দল। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আলো ছড়ালেন ব্রুনো ফের্নান্দেস; পেনাল্টি থেকে গোল করলেন, সতীর্থের দুই গোলে রাখলেন অবদান। ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে এনে দিলেন দারুণ এক জয়।

এই জয়ে ২৭ ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে উঠে এসেছে ইউনাইটেড। ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ১৯ নম্বরে ওয়াটফোর্ড। ২৬ ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে চূড়ায় রয়েছে লিভারপুল। ২৭ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে ম্যানচেস্টার সিটি। তৃতীয় স্থানে থাকা লেস্টার সিটির পয়েন্ট ৫০। ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে চারে চেলসি।

ম্যাচের শুরু থেকে আধিপত্য ধরে রাখা সুলশারের দল ৪২তম মিনিটে ফের্নান্দেসের সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায়। ডি-বক্সে পর্তুগিজ এই মিডফিল্ডারকে গোলরক্ষক বেন ফস্টার ফাউল করলে পেনাল্টি পায় দলটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ইউনাইটেডের জালে বল পাঠায় ওয়াটফোর্ডের ট্রয় ডিনি। তবে এর আগে সফরকারীদের ক্রেইগ ডসনের হাতে বল লাগায় ভিএআর দেখে গোল দেওয়া হয়নি।

৫৮তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অঁতনি মার্সিয়াল। ফের্নান্দেসের কাছ থেকে বল পেয়ে তালগোল পাকান এই ফরোয়ার্ড। একা পেয়েও ফস্টারকে ফাঁকি দিতে পারেননি। গোলরক্ষকও পারেননি বল বিপদমুক্ত করতে। ফিরতি বল পেয়ে ঠাণ্ডা মাথায় ফস্টারের মাথার উপর দিয়ে চিপে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্সিয়াল।

প্রতি আক্রমণে ৭৫তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান ম্যাসন গ্রিনউড। ফের্নান্দেসের কাছ থেকে বল পেয়ে বুলেট গতির শটে খুঁজে নেন জাল। ফেরানোর কোনো সুযোগই ছিল না ফস্টারের। ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। ৮৮তম মিনিটে দুর্বল হেডে অ্যাডাম ম্যাসিনা বল পাঠাতে চেয়েছিলেন ফস্টারের কাছে। ছুটে গিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে নেন ওডিন ইঘালো। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি, শট নেন পোস্টে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন