Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ১০ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

‘সিএএ’ বিরোধী ও সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উত্তাল দিল্লি, ১ পুলিস সদস্য নিহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:৪৪ পিএম

ট্রাম্পের ভারত সফরের মধ্যেই সিএএ-র সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সংঘর্ষ ভয়ঙ্কর আকার নিল রাজধানী দিল্লির মৌজপুর। আগুন দেয়া হল গাড়ি, অটোতে। হিংসাশ্রয়ী জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিস। অন্যদিকে জনতার মধ্যে থেকে ছোড়া পাথরে প্রাণ হারালেন দিল্লির পুলিসের এক কনস্টেবল। আহত এক ডিসিপি পদ মর্যাদার অফিসার।

শনিবার রাত থেকেই উত্তরপূর্ব দিল্লির জাফরাবাদে সিএএ বিরোধী আন্দোলনে নেমেছেন মহিলারা। রবিবার সেখানে পাথর ছোড়ে সিএএর সমর্থক একদল জনতা। এনিয়ে উত্তজনা তৈরি হয়। পুলিস লাঠিচার্জ করে, কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করে। সোমবার সকালে তা আবার শুরু হয়ে যায় সংঘর্ষ।

বিরোধী ও সমর্থকদের সংঘর্ষে দিল্লির মউজপুরের গোকালপুরির কাছে মৃত্যু হয় দিল্লি পুলিশের হেড কনস্টেবল রতন লালের। পুলিশ সূত্রে খবর, ছোঁড়া পাথরের আঘাতে তার মৃত্যু হয়। সোমবার সকাল থেরে মউজপুরের কাছে কবীর নগরে উত্তেজনা ছড়ায়। এমনকী দিল্লি পুলিশের সামনেই বন্দুক হাতে নিয়ে আস্ফালন করতে দেখা যায় ‘সিএএ’ সমর্থক এক যুবককে।

রোববারের পর সোমবার সকাল থেকে মউজপুর এলাকায় নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়। দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় অশান্তি বাধে। দুপুরের পর মৌজপুর মেট্রো স্টেশনের সামনে একাধিক গাড়ি ও মোটরসাইকেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। বিজেপির অভিযোগ, বিক্ষোভকারীরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তারাই হিংসা ছড়াচ্ছে। পাল্টা বিক্ষোভকারীদের বক্তব্য, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ ভাঙতে বিজেপিই লোক পাঠিয়ে অশান্তি পাকাচ্ছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন উত্তর-পূর্ব দিল্লির ডিসিপি বেদ প্রকাশ। সূত্র: জি নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন