Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

অজ্ঞাত রোগে একই পরিবারের

২ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৩ ঘটনাস্থলে আইইডিসিআর‘র ৪ বিশেষজ্ঞ দল

ঠাকুরগাঁও জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় অজ্ঞাত রোগে ২ জনের মৃত্যু ও ৩ জনের অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্বাস্থ্য বিভাগের রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)’র ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি বিশেষজ্ঞ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সনগাঁও গ্রামে পৌছান। মৃত্যুর কারণ জানতে বাড়ী ও আশপাশের এলাকা থেকে নমুনাও সংগ্রহ করেছেন তারা। এর আগেও গত সোমবার রাতে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩ রোগীর কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছেন মেডিকেল টিমের সদস্যরা।
আইইডিসিআর’র ৪ সদস্য বিশিষ্ট মেডিকেল টিমের সদস্যরা হলেন, মেডিকেল অফিসার ডা. ওমর কাইয়ুম, ডা. কাজী করিম তাহমিনা ও মেডিক্যাল টেনকোনোজিস্ট কাজী মাসুম ও মনির উদ্দীন। তাদের সাথে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবুল কাসেম উপস্থিত ছিলেন।
ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার বলেন, আইইডিসিআর এর টিম নমুনা সংগ্রহ শেষ করে ঢাকায় পাঠাবেন। সেখান থেকে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে প্রতিবেদন প্রদান করলেই জানা যাবে মৃত্যুর সঠিক কারণ।
ঠাকুরগাঁওয়ে অসুস্থ ৩ জন রোগীদের প্রসঙ্গে সিভিল সার্জন জানান, তাদের শারীরিক অবস্থা এখন খুব ভাল। আশা করছি হাসপাতাল থেকে তারা ছাড়া পাবেন। স্বাস্থ্য বিভাগ সব সময় এলাকাটিকে নজরদারিতে রেখেছেন। মানুষকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।
এর আগে শুক্রবার রাতে হঠাৎ হাফিজুলের স্ত্রী মিনা বেগম মৃত্যুবরণ করেন। এরপর শনিবার রাতে আবারো হাজিরুলের স্ত্রী পশিনা বেগম হঠাৎ করে বমি করা শুরু করলে তাকে বালিয়াডাঙ্গী হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা নেয়ার পরে তাকে বাসায় নিয়ে আসা হলে গত রোববার ভোরে বাবার বাসায় মারা যায় সে। পরে আবারো পরিবারের তিনজন সদস্য অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অসুস্থ অবস্থায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক চিকিৎসাধীন রয়েছেন ঐ পরিবারের মৃত গিয়াস উদ্দীনের স্ত্রী হাজেরা বেগম (৩৪), মফিজুল ইসলামের স্ত্রী আলিয়া (৩২) ও নিহত মিনা বেগমের মেয়ে তানজিনা।
এর আগে, গত বছর ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ধনতলা মরিচপাড়া গ্রামে অজ্ঞাত রোগে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু হয়। পরে ঢাকা থেকে স্বাস্থ্য বিভাগের রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর)’র প্রতিনিধি দল এসে পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে জানায় তারা সকলেই নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছিলেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইইডিসিআর

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ