Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়ার তাগিদ

চট্টগ্রাম ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে নিছক আতঙ্ক নয়। বরং সেই পরিবর্তন মোকাবিলায় খাপ খাইয়ে নেয়ার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখাই হবে আমাদের অন্যতম করণীয়। এরজন্য অভিযোজন ক্ষমতা তথা টেকসই সক্ষমতা, প্রযুক্তি-কৌশল ও পারদর্শিতা অর্জন করতে হবে। গতকাল (মঙ্গলবার) চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) দুই দিনব্যাপী ‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ও অভিযোজন’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট আলোচকগণ এই অভিমত ব্যক্ত করেন। 

চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগ এবং সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরকৌশল ভবনে এ কর্মশালা উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন বর্তমান বিশ্বে এক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। এরফলে সর্বত্র বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি ঘটছে। এটি শীতপ্রধান অঞ্চলের জন্য আশীর্বাদ হলেও আমাদের জন্য আতঙ্কের বিষয়। আমরা চাই তাপমাত্রা সহনীয় পর্যায়ে থাকুক।
তিনি বলেন, গত ৪০ বছর আগের অবস্থার সাথে তুলনা করলে দেখা যাবে বিশ্বব্যাপী অনেকক্ষেত্রেই বৈপ্লবিক পরিবর্তন হয়েছে। আমরা সেসব পরিবর্তনের সাথে মানিয়ে নিয়েছি। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সবসময়ই খারাপ হয় না। অনেক ক্ষেত্রে তা ভালো কিছুও বয়ে আনতে পারে। এরজন্য দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে এ বিষয়ে গবেষণায় গুরুত্ব বাড়াতে হবে।
ইউজিসি সদস্য ড. মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, আমাদের দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে এখনও বিদেশিদের ওপর নির্ভরতা কমছে না। এসব শিল্পে কেন আমাদের গ্র্যাজুয়েটরা গুরুত্ব পাচ্ছেন না তার কারণ খুঁজে বের করতে হবে। প্রয়োজন অনুসারে কারিকুলাম সাজাতে হবে। তাহলেই আমাদের গ্র্যাজুয়েটরা মানবসম্পদে পরিণত হবেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চুয়েট ভিসি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশও এর বিরূপ প্রভাব এবং ভয়াবহ ঝুঁকিতে রয়েছে। দেশের সমুদ্র উপকূলীয় অঞ্চলের এক-তৃতীয়াংশ তলিয়ে যেতে পারে এমন পূর্বাভাসও দেয়া হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে আতঙ্কিত না হয়ে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে মৌলিক গবেষণাকাজ চালিয়ে যেতে হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চুয়েট পুরকৌশল বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. সুদীপ কুমার পাল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিইএসইআর’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোছাম্মাৎ ফারজানা রহমান জুথী। সঞ্চালনা করেন সেন্টারের গবেষণা প্রভাষক মো. আরিফ হোসেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের পরিস্থিতি নিয়ে একটি ভিডিওচিত্র উপস্থাপন করা হয়।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জলবায়ু পরিবর্তন

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ