Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪১ হিজরী

প্রধান শিক্ষকের হাতে ধর্ষিত সহকারী শিক্ষিকা

সোনাগাজী (ফেনী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

সোনাগাজীর চর মজলিশপুর ইউনিয়নের কুঠির হাট আল আমীন একাডেমীর প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা।
জানা যায় ,আল আমীন একাডেমীর প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম(৩৪)তার বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকার সাথে দীর্ঘদিন যাবত বিয়ের প্রলোভনে শারিরিক সম্পর্ক করে আসছে। সাইফুল ব্যাক্তিগত জীবনে বিবাহিত ও দুই সন্তানের জনক ,অপর দিকে স্বামী পরিত্যক্ত সহকারি শিক্ষিকাও এক সন্তানের জননী। পরকিয়া প্রেমে হাবুডুবু খেলেও বিয়ে করতে বলায় কমিটিকে দিয়ে গত দুই দিন আগে স্কুল থেকে সহকারি শিক্ষিাকে বহিষ্কার করে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় সাইফুল। সাইফুল ইসলাম মজলীশপুর গ্রামের নুরুল আলম প্রফেসরের ছেলে।
ভিকটিম জানায়, স্কুল ছুটির পরও অফিসের নানান কাজের অজুহাতে তাকে অফিসে থাকতো বলা হোতো সবাই চলে গেলে সুযোগ পেয়ে প্রথম দিকে একাধিকবার জোর পূর্বক তাকে শ্লীলতাহাণী করে। পরে বিষয়টি তিনি অন্যদের জানাতে চাইলে বিয়ের বিয়ের আশ্বাস দেন প্রধান শিক্ষক ঠিক তখন থেকে তাদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। মঙ্গলবার সকালে বিয়ের দাবিতে চেয়ারম্যানের দ্বারস্ত হলে চেয়ারম্যান উভয়কে ডেকে থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করে ।
অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম নিজেকে নির্দোষ দাবী করে বলেন, এ শিক্ষিকা চরিত্রহীন স্বামী পরিত্যক্ত আমাকে সে পরিকল্পিত ভাবে ফাঁসানো চেষ্টা করছে। ওই ঘটনায় শিক্ষিকা বাদি হয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২৬ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ