Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

২৫ ফেব্রুয়ারিকে ‘শহীদ সেনা দিবস’ ঘোষণার দাবি

জাতীয় গণতান্ত্রিক পাটির আলোচনা সভা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:২২ এএম

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি- জাগপা’র সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেছেন, ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি দেশের সেনাবাহিনীর উপরে আঘাত করা হয়েছিল। দেশের সূর্য সন্তানদের হত্যা করে, আমাদের প্রতিরক্ষাকে দুর্বল করে, বাংলাদেশকে পঙ্গু করতে এ হত্যা হয়েছে। গতকাল আসাদ গেট জিইউপি মিলনায়তেন জাগপা আয়োজিত ‘পিলখানা ট্র্যাজেডি-কার স্বার্থে ষড়যন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তাসমিয়া প্রধান বলেন, মেজর-জেনারেল থেকে ক্যাপ্টেন পর্যন্ত বিভিন্ন পদের ৫৭ জন সেনা কর্মকর্তা সেদিন শহীদ হয়েছিলেন। সেই নির্মম-নৃশংস হত্যাযজ্ঞের স্বয়ংসম্পূর্ণ, অবিতর্কিত এবং গ্রহণযোগ্য তদন্ত আজও হয় নাই। পিলখানা ট্র্যাজেডির রক্তের দাগ এখনো শুকায় নাই, অবিলম্বে ২৫ ফেব্রুয়ারিকে ‘শহীদ সেনা দিবস’ ঘোষণা করতে হবে।
তিনি বলেন, দেশের মানুষ জানতে চায় কার স্বার্থে, কার নির্দেশে সেদিন দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর মেধাবী কর্মকর্তাদের হত্যা করা হয়েছিল? কারা গণতন্ত্রকে হত্যার গভীর ষড়যন্ত্রে এখনো লিপ্ত আছে? তাদের মুখোশ খুলে দিতে হবে, ষড়যন্ত্রের খলনায়কদের সামনে নিয়ে আসতে হবে এবং তাদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।
জাগপা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জাগপা, যুব জাগপা ও জাগপা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গণতান্ত্রিক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ