Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী

দিল্লির সংঘর্ষ নিয়ে মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক, গভীর রাতে বিচারপতির বাড়িতে শুনানি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:৫৬ পিএম

ভারতের দিল্লিতে নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে হওয়া সংঘর্ষে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় আড়াই শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা আরও অনেক বেশি বলে আশঙ্কা করা হয়েছে। বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ভারতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফরকালেই রণক্ষেত্রে পরিণত হয় দিল্লি। এনডিটিভি জানায়, ট্রাম্প দিল্লির যেখানে অবস্থান করছিলেন, তার মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরেই চলছিল ওই সংঘর্ষ। মূলত গত রোববার থেকেই নাগরিকত্ব আইনের পক্ষ-বিপক্ষে এ সহিংসতা শুরু হয়। ধীরে ধীরে তা ছড়িয়ে পড়ে।
এদিকে ভয়াবহ এ সহিংসতার ঘটনায় ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ গত ২৪ ঘণ্টায় ৩টি বৈঠক করেছেন। তিনি দিল্লির আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখেন। এ পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার রাতে আহতদের নিরাপত্তা ও জরুরি চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট।

সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে আশপাশের অন্যান্য অঞ্চলেও। কেন্দ্র ও দিল্লি প্রশাসন সহিংসতা বন্ধের জন্য একাধিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আবারও জরুরি আলোচনায় বসেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অজিত দোভাল।

জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা (এনএসএ) অজিত দোভাল এবং দিল্লির পুলিশ প্রধান অমূল্য পট্টনায়েক মঙ্গলবার গভীর রাতে সলিমপুরে উত্তর-পূর্ব ডিসিপি বেদ প্রকাশ সূর্য কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। দোভাল, পটনায়েক এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিস্থিতিটির প্রথম দিকের পর্যালোচনা করার জন্য মৌজপুর, জাফরাবাদ, গোকুলপুরী এবং ভজনপুরা গিয়েছিলেন।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলের কর্মকর্তা ও বিধায়কদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছেন এবং কর্মকর্তাদের কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বয় সাধন এবং সহিংসতা চক্রের অবসান ঘটাতে নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি প্রতিবাদকারীদের সহিংসতায় লিপ্ত হওয়ার পরিবর্তে শান্ত হওয়া এবং তাদের বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলার আহ্বান জানান।

গভীর রাতে বিচারপতির বাড়িতে শুনানি
দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে চলেছে শুনানি। এতে আহতদের নিরাপদে হাসপাতালে পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট। গভীর রাতে দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে হওয়া একটি মামলার শুনানি হয় বিচারপতি এস মুরলীধরের বাড়িতে। শুনানিতে ছিলেন আরেক বিচারপতি।
দিল্লি পুলিশকে অশান্ত এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চত করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি আহতদের হাসপাতালে পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা আদালতকে জানানোর নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট। আদালতের নির্দেশ জিটিবি হাসপাতাল, লোক নায়ক জয়প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতালের পৌঁছে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে পুলিশকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন