Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নোয়াখালীর সেনবাগে স্কুলছাত্র হত্যা মামলায় তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:৩০ পিএম

সেনবাগ উপজেলায় ২০১৮ সালে ৯ম শ্রেণির ছাত্র মো. আবু সাখের শাহিন হত্যা মামলায় তিন আসামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এ সময় এক নারী আসামীকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। বুধবার বিকালে জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমদ শুনানী শেষে এ আদেশ দেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলো, সেনবাগ উপজেলার পশ্চিম আহাম্মদপুর গ্রামের মো. আব্দুল মোতালেব দুলাল, মো. মহসিন আলী ফারুক ও আব্দুল কুদ্দুছ মাখন । নিহত শাহিন একই গ্রামের ছেলে, সে হাজী মোকছেদুর রহমান মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রæয়ারি রাতে মোবাইলে ডেকে এনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয় মো. আবু সাখের শাহিনকে। পরের দিন তার বাবা বাদী হয়ে ৭জনকে আসামী করে সেনবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে এজাহারভুক্ত চারজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে আদালত মোট ১৭জন সাক্ষীকে পরীক্ষা করে এবং দীর্ঘ শুনানী শেষে আজ বুধবার তিন আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেন। একই সাথে মো. আব্দুল মোতালেব দুলাল, মো. মহসিন আলী ফারুকে এক লাখ টাকা জরিমানা ও আব্দুল কুদ্দুছ মাখনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট মোল্লা হাবিবুর রসুল মামুন, এডভোকেট ইসমাইল ফয়েজ উল্যা রাসেল ও এডভোকেট নিজাম উদ্দীন (হক)

নিহতের বাবা ও মামলার বাদী মোরশেদ আলম, আদালতের সাজায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন বলেন, তিনি আশা করেছিলেন আদালত অপরাধীদের মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিবেন। এখন আদালত যে আদেশ দিয়েছেন তা যেনো উচ্চ আদালতেও বহাল থাকে।

জেলা ও দায়রা জজ আদালত নোয়াখালী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) গুলজার আহমেদ জুয়েল জানান, আদেশকালে সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে মো. আব্দুল কুদ্দুছ মাখন ও অব্যাহতি প্রাপ্ত আসামী সেলিনা আক্তার মুক্তা আদালতের ডাকে উপস্থিত ছিলেন। অপর দুই জন আসামী মো. আব্দুল মোতালেব দুলাল, মো. মহসিন আলী ফারুক এখনও পলাতক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কারাদণ্ড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ