Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী

দেশে এএফসি সনদধারী কোচ ৪২৪ জন!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

দেশের ফুটবলের যাচ্ছেতাই অবস্থা। অথচ বাংলাদেশে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) সনদধারী কোচ রয়েছেন ৪২৪ জন! এই সংখ্যার মধ্যে ২৬৮ জন কোচ গত তিন বছরে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) বর্তমান কমিটির অধিনে সনদ অর্জন করেন। গতকাল বাফুফের টেকিনক্যাল কমিটির সভা শেষে এমন তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশের ফুটবল জনপ্রিয়তা হারিয়েছে দীর্ঘদিন আগে। বর্তমানে গুটি কয়েক আসরের মাঝেই সীমাবদ্ধ থাকছে লাল-সবুজের ফুটবল। ফেডারেশন কাপ, স্বাধীনতা কাপ ও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বৃত্ত থেকে কিছুতেই বের হতে পারছে না বাফুফে। যদিও অনেক বছর পরে চলতি বছরে আলোর মুখ দেখেছে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ। তবে সাম্প্রতিক সময়ে আন্তর্জাতিক কোন টুর্নামেন্টে সফল হতে পারেনি বাংলাদেশ। গত মাসে ঢাকায় শেষ হওয়া বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টে বরাবরের মতই ব্যর্থ লাল-সবুজরা। ২০০৯ সালের পর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের মুখ দেখেনি বাংলাদেশ। শুধু তাই নয়, ২০১০ সালের পর সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমস ফুটবলে ধারাবাহিক ব্যর্থ তারা। শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব বা এএফসি কাপেও নিষ্প্রভ ক্লাবগুলো। ফুটবলের জনপ্রিয়তা শূণ্যের কোঠায় নামায় দর্শক খরায় ভুগছে দেশের অন্যতম আন্তর্জাতিক ভেন্যু বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। ঘরোয়া আসরে তো দর্শকের দেখা মেলা ভার। আর আন্তর্জাতিক আসরেও এখন দর্শকরা গাঁটের পয়সা খরচ করে শ্রীহীন ফুটবল দেখতে স্টেডিয়ামে আসেন না। এই যখন দেশের ফুটবলের চেহারা তখন কোচের সংখ্যা দিনকে দিন বাড়ছেই। টেকনিক্যাল কমিটির হিসেব তাই বলে। যা দেখে হতবাক দেশের ফুটবলবোদ্ধারা। শুধূ কোচের সংখ্যাই নয়, কাল বাফুফের টেকনিক্যাল কমিটি আরো একটি হিসেব দিয়েছে। আর তা হলো- বাফুফের বর্তমান কমিটির মেয়াদে ৬০ জন জাতীয় রেফারি প্রথম শ্রেনীর যোগ্যতা অর্জন করেছেন। টেকনিক্যাল কমিটির সভা শেষে আরো জানানো হয়, বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল এশিয়ায় ২৪ নম্বরে এবং দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। এতে দারুণ খুশি বাফুফে কর্তারা। এছাড়া চলতি বছর গোলকিপিং ও ফিটনেসের বেশ ক’টি কোর্সের আয়োজনও করবে বাফুফের টেকনিক্যাল কমিটি। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, ফুটবল খেলা নয়, কোচে স্বয়ং সম্পন্ন হতে চায় বাংলাদেশ। কিন্তু তাতে লাভ কি। ফুটবলের মান নি¤œমুখী থাকলে কোচ দিয়ে কি হবে? কোচরা তো আর মাঠের খেলবেন না।

 

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল

১ এপ্রিল, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন