Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী

বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ সমাবেশ আজ

অবিলম্বে মোদির রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ বাতিল করা হোক, আল্লামা আহমদ শফী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

সস্প্রতি ভারতের দিল্লিতে মুসলমানদের হত্যা নির্যাতন এবং মসজিদ ভাঙচুর ও আগুন লাগানোর ঘটনার প্রতিবাদে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন দারুল উলূম হাটহাজারীর মহাপরিচালক হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। তিনি এক বিবৃতিতে বলেন, মুজিববর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানে ইসলাম ও মুসলিমবিদ্বেষী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশের জনগণ দেখতে চায় না।
আল্লামা শফী বলেন, মোদির প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে গুজরাট, কাশ্মীর দিল্লীসহ অনেক রাজ্য মুসলমানদের খুন করা হয়েছে। চরম নির্যাতন নিপীড়ন চালানো হয়েছে। তাই যার হাতে এখনো মুসলিম গণহত্যার দাগ লেগে আছে তাকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ বাংলাদেশের জনগণ মেনে নিবে না। অবিলম্বে মোদির রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ বাতিল করা হোক।
আমিরে হেফাজত আরো বলেন, ইসলাম সব সময় মানবাধিকারের কথা বলে। শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার কথা বলে। অমুসলিম সম্প্রদায়কে নিরাপত্তাদানের কথা বলে। আমাদের দেশের মুসলমানগণ বারবার তা প্রমাণ করে দেখিয়েছে।
মানবপ্রাচীর তৈরি করে মন্দির পাহারা দেয়ার নজীর আমরা দেখিয়েছি। বাংলাদেশে সংখ্যালঘুরা সবচেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে বসবাস করছে। অথচ ভারতে এর উল্টো চিত্র আমরা দেখতে পাচ্ছি। ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায় সব সময় সংখ্যাগরিষ্ট হিন্দু সম্প্রদায়ের হাতে নির্যাতিত নিপীড়িত হচ্ছে।
এছাড়া বিভিন্ন ইসলামী রাজনৈতিক দল বিক্ষোভ সমাবেশ ও বিবৃতি দিয়েও ভারতে মুসলিম গণহত্যার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে। আজ শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে সম্মিলিত ইসলামী দলের উদ্যোগে ভারতে মুসলিম গণহত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে।
আমিরে হেফাজত আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পর সকল মসজিদে ভারতের মুসলমানসহ বিশ্বের নির্যাতিত মুসলমানদের জন্য বিশেষ দোয়া করতে জনগণের প্রতি অনুরোধ জানান।
বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন : বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী বলেছেন, দিল্লীর মুসলিমবিরোধী আগ্রাসান গোটা মুসলিম বিশ্বকে অস্থির করে তুলেছে। মুসলমানদের হৃদয় ক্ষত-বিক্ষত করেছে। দিল্লীতে মসজিদে অগ্নিসংযোগ এবং মুসলমানদের ওপর বর্বর নির্যাতন ও নৃশংস গণহত্যা চলছে। যা কোন শান্তিকামী মানুষ মেনে নিতে পারে না। ভারতের মুসলমানদের রক্ষায় বিশ্ববাসিকে জোড়ালো ভূমিকা রাখতে হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বাদ আসর রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে দিল্লীতে মসজিদে অগ্নিসংযোগ এবং মুসলমানদের ওপর বর্বর হত্যা ও নির্যাতন বন্ধের দাবিতে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, মুফতি ইলিয়াস মাদারীপুরী। পরে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।
জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ : জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর সহসভাপতি সমমনা ইসলামী দল সমুহের অন্যতম শীর্ষ নেতা শায়খুল হাদীস আল্লামা আবদুর রব ইউসুফী বলেছেন, ভারতের মুসলমানদের ওপর জুলুম নির্যাতনের যে নীল নকশা তৈরি করেছে তার বিরুদ্ধে বিশ্ব মানবাধিকার গোষ্ঠি, বিশেষ করে মুসলমানদের কঠোর প্রতিরোধ গড়ে না তুললে বিশ্ব পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে।
আল্লামা ইউসুফী বাদ মাগরিব জমিয়ত মিলনায়তনে সমমনা ইসলামী দল সমুহের বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সভায় আজ বাদ জুমা বায়তুল মাকারামের উত্তর গেইটে সমমনা ইসলামী দলসমূহের উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ সফল করার আহবান জানানো হয়।
এছাড়া গতকাল মুসলিম লীগের অফিসে প্রতিবাদ সভায়ও নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ভারতে মুসলিম হত্যা বন্ধের জোর দাবি জানানো হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল আজিজ হাওলাদার। ইসলামী ঐক্য আন্দোলন ও বাংলাদেশ জনসেবা আন্দোনের নেতৃবৃন্দও ভারতে মুসলিম গণহত্যার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মোদি


আরও
আরও পড়ুন