Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

উত্তরায় গ্যাসের লাইনে ফের লিকেজ : ভয়াবহ যানজটে দুর্ভোগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:৪১ পিএম | আপডেট : ১২:৪৯ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

রাজধানীর উত্তরায় হাউস বিল্ডিং মোড়ে ১২ ইঞ্চি ব্যাসের একটি পাইপলাইন ফেটে তীব্র বেগে গ্যাস বের হওয়ার ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন স্থানীয়রা। এ অবস্থায় যেকোনও সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা। শুক্রবার (২৮ ফেব্রæয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ পরিস্থিতিতে ঢাকা ময়মনসিংহের মহাসড়কসহ উত্তরা এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে ছুটির দিনেও নগরবাসী ব্যাপক দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গাজীপুর ও হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মধ্যে ২০.৫ কিলোমিটার বিআরটি লাইন প্রকল্প নির্মাণ কাজের সময় মাটি খুড়তে গিয়েই এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে প্রকল্প এলাকার নিরাপত্তাকর্মীরা দুর্ঘটনাস্থল লাল কাপড় দিয়ে ঘেরাও করে রাখেন।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ট্রাফিক পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) মোহাম্মদ সাইফুল হক বলেন, সেখানে ১২ ইঞ্চি ব্যাসের একটি গ্যাসপাইপ ফেটে গেছে। তবে কেন এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তা এখন বলতে পারবো না। সেখানে তিতাসের লোকজন গেছে, ফায়ার সার্ভিসও রয়েছে। আমরা গাড়ি ডাইভারশন করে দিয়েছি, যাতে সেখান দিয়ে গাড়ি না যায়।

রাজধানীর উত্তরা হাউজবিল্ডিং এলাকায় এ নিয়ে চতুর্থবারের বারের মত গ্যাসলাইন লিকেজ (ছিদ্র) হয়ে গ্যাস নির্গত হওয়ার ঘটনা ঘটলো।
উত্তরা জোনের ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার ইনকিলাবকে জানান, হঠাৎ করে গ্যাসের লিকেজ দেখা দেয়ায় দুর্ঘটনাস্থলের আশপাশের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের ডিউটি অফিসার জানান, রাজধানীর উত্তরা হাউজবিল্ডিং ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বাস রেপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের কাজের পাইলিং করতে গিয়ে এর আগে কমপক্ষে তিনবার গ্যাসের বিতরণ পাইপ লাইন কেটে গ্যাস নির্গত হওয়ার ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই অংশ থেকে আবারও গ্যাস নির্গত হতে থাকে। এতে আশেপাশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে উত্তরা ফায়ার স্টেশনের দুটি ইউনিট আশেপাশে লোকজনদের নিরাপদে সরিয়ে দেয় যাতে করে আগুন লাগলে তাৎক্ষণিক মোকাবেলা করা যায়। তিনি জানান, তিতাস গ্যাসের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে গেছে। তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে এ ঘটনায় উত্তরা থেকে বিমানবন্দর হয়ে মহাখালী এবং হাউজ বিল্ডিং থেকে গাজীপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত দুপাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এমনকি উত্তরা এলাকার প্রতিটি সড়কে শত শত গাড়ি ঢুকে পরায় যানজট ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ভুক্তভোগিরা জানান, ঘটনা ঘটার পর পুলিশ তৎপর হলে এরকম যানজটের সৃষ্টি হতো না। দূর থেকে গ্যাস নির্গত হতে দেখে গাড়িগুলো এলোপাথারিভাবে অলি-গলিতে ঢুকে পরায় চেষ্টায় যানজট আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এমনটি বিকল্প পথে যানবাহন চলাচলেও পুলিশের তৎপরতা না থাকায় পরিস্থিতি ক্রমে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

 



 

Show all comments
  • Mohammad Abdul Hasan ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৫ পিএম says : 0
    জনসাধারণের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা ছাড়া কিছুই না। বিআরটি প্রকল্প কর্মকর্তাদের কাণ্ডজ্ঞানী কর্মকাণ্ডে সাধারণ মানুুষ আজ ভয়াবহ বিপদে। তাদের কাছে পথচারীদের জীবনের কোনো মূল্য নেই। সরকারের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ তোফায়েল হোসেন ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের পুলিশ, দমকল বাহিনী এতটা অকর্মা, একটা দুর্ঘটনা ঘটলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া সক্ষমতা নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ তোফায়েল হোসেন, উত্তরা ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৮ পিএম says : 0
    জনগণকে জিম্মি করে আমরা উত্তরাবাসী এই উন্নয়ন প্রকল্প চাইনা। কতকাল আমাদের জাহান্নামের মধ্যে থাকতে হবে আল্লাহই ভালো জানেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • তোফাজ্জল হোসেন ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৯ পিএম says : 0
    প্রায়ই রাাস্তা খোঁড়াখুড়ি করতে গিয়ে এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। তবুও কেন পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে কাজে নামা হয় না। কখন গ্যাস লাইন ফেটে গেছে কিন্তু এখন পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণের কোনো বালাই নেই।
    Total Reply(0) Reply
  • মরিয়ম বিবি ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০০ পিএম says : 0
    পুলিশ শুধু পারে রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ন্ত্রণ করতে। সেই কখন গ্যাসলাইন ফেটে আটকা পড়েছে পথচারীরা বিপাকে পড়েছে অথচ এখন পর্যন্ত দমকল বাহিনী নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি। সরকারকে এদিকে সুদৃষ্টি দেওয়া উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • জাহিদ খান ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০২ পিএম says : 0
    ধন্যবাদ ইনকিলাবকে দুর্ভোগ নিয়ে নিউজ করায়। আমরা রীতিমতো উত্তরাবাসী উন্নয়ন কাজের খোড়াখুড়ি, সড়ক, গ্যাস দুর্ঘটনায় জিম্মি হয়ে পড়েছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • মেহেদী ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০৩ পিএম says : 0
    এর আগেও ওই এলাকায় তিনবার গ্যাস লাইন ফেটে দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে, তারপরেও পুলিশ প্রশাসন ও কর্তৃপক্ষের কোনো প্রস্তুতি ছিল না তার অবশ্য জবাব দিতে হবে। এভাবে একটা দেশ চলতে পারে না।
    Total Reply(0) Reply
  • কাজী মুস্তাফিজ, উত্তরা হাউজবিল্ডিং ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০৫ পিএম says : 0
    আমরা উত্তরাবাসী যেন জাহান্নামের মধ্যে বসবাস করি। রাস্তায় খোঁড়াখুঁড়ি, গ্যাস দুর্ঘটনা এটা সেটা লেগেই আছে। কিছুদিতন পর পর গ্যাস থাকে না, এক অসহনীয় অবস্থা।
    Total Reply(0) Reply
  • সাইফুল ইসলাম চঞ্চল ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:০৬ পিএম says : 0
    যতসব অদক্ষ মানুষ দিয়ে বিআরটি লাইন প্রকল্প নির্মাণ কাজ করানো হচ্ছে। কদিন পরপরই দুর্ঘটনা।সাধারণ মানুষ জিম্মি হয়ে আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:২৭ পিএম says : 0
    আমি সরকারি অফিসার......আমি ধারি না কারো ধার.....যা খুশি তাই বলে দিতে পারি এটাই আমার অধিকার
    Total Reply(0) Reply
  • M Shaharul Alam ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:২৮ পিএম says : 0
    Needs expertise planning action, skilled administration, modern technical knowledge for plan and design, honest and sincere enforcement, patronized devotion, patriotism and commitment, corporate honesty and liability policies, ability and confidences for the key person to mitigate/uprooted the road accident and traffic jam within 6 month visible and not more than two years to stop. Otherwise no well output would come out.
    Total Reply(0) Reply
  • Hasan ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:২৯ পিএম says : 0
    সরকার চাইলেই অনেকটা পরিবর্তন করা সম্ভব। কিন্তু সরকার তার দলের লোকদের লুটপাটের সুযোগ করে দিচ্ছে। ফলে কিছুই হচ্ছে না। এই অবস্থার পরিবর্তন চাইলে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • M A RASHID ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:২৯ পিএম says : 0
    রাস্তা দেখার মত মানুষ নাই । তাহলে এত দুর্ঘটনা হত না ।
    Total Reply(0) Reply
  • নীল আকাশ ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৩০ পিএম says : 0
    এদেশের অনেক পলিসি স্ক্র্যাপ করার সময় এসেছে। স্বাধীনতার সুবর্ন জয়ন্তী আসছে আর এই যদি হয় সোনার বাংলাদেশ, নতুন প্রজন্ম এমন বাংলাদেশ চায়না। সময় এসছে নতুন করে ভাবার।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ তোফায়েল হোসেন ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৩১ পিএম says : 0
    ঢাকার সবচেয়ে ব্যস্ত সড়কগুলোর একটি বিমানবন্দর-গাজীপুর। যাতায়াত সহজ করতে এ সড়কে বাসের জন্য পৃথক লেন (বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট বা বিআরটি) তৈরি করছে সরকার। ছয় বছরের বেশি সময় ধরে ঝুলে আছে এ প্রকল্পের কাজ। পরামর্শক নিয়োগ, নকশা প্রণয়ন, দরপত্র আহ্বান থেকে ভৌত কাজ ধীরগতি সবখানেই।
    Total Reply(0) Reply
  • রিদওয়ান বিবেক ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৩২ পিএম says : 0
    বেশ কিছুদিন ধরে বিআরটির কাজের জন্য গাজীপুরের টঙ্গী অংশে চলছে খোঁড়াখুড়ির কাজ। মহাসড়কের বড় অংশ বন্ধ করে এই খোঁড়াখুড়ির কারণে প্রতিদিনই সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ যানজটের।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন