Inqilab Logo

শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২১ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ভক্তকে চুমু খেয়ে অসুস্থ পোপ, করোনার আশঙ্কা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:২৫ পিএম

ভক্তদের গালে চুমু দিয়ে ও মাথায় হাত বুলিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন রোমান ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। ইতালির রোম শহরের সেন্ট পিটার্সবার্গ স্কয়ারে এক সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত ইতালির রোমে সমাবেশে অংশ নিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার শরীরে এই ভাইরাস সংক্রমিত হয়েছে এমন গুঞ্জনও ছড়িয়ে পড়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রোমান ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। রোমের পাদ্রীদের সঙ্গে এক গণজমায়েতে অংশ নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থ হয়ে পড়ায় তিনি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারেননি।

পোপের শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়েছে গুঞ্জন ছড়ালেও এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনো তথ্য জানায়নি ভ্যাটিকান সিটি কর্তৃপক্ষ। তারা শুধু জানিয়েছে, ৮৩ বছর বয়সী পোপ হালকা অসুস্থতায় ভুগছেন। রোমের পাদ্রীদের সঙ্গে গণজমায়েতে অংশ নিতে পারবেন না তিনি। তবে পূর্বনির্ধারিত অন্যান্য কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন। তিনি ভ্যাটিকানের শান্তা মার্তা হোটেলের কাছে অবস্থান করবেন, যেখানে তিনি বসবাস করেন।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইলে প্রকাশিত কয়েকটি ছবিতে পোপ ফ্রান্সিসকে চোখ মুছতে ও নাক ঝাড়তে দেখা গেছে। সমাবেশে যোগ দিয়ে ভক্তদের সঙ্গে তিনি হাত মেলান, শিশুদের চুমু দেন কারও মাথায় হাত বুলিয়ে দেন, এসব ছবিও প্রকাশ পেয়েছে।

দৈনিক ডেইলি মেইল আরও জানিয়েছে, পোপ এমন একটি সময় সমাবেশে যোগ দিয়েছেন, যে সময় রোম করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত। তাকে হাঁচি দিতে দেখা যায়, চোখ মুছছিলেন এমনকি নাক ঝারছিলেন। যে কারণে পোপে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে গুঞ্জন ছড়িয়েছে।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালিতেই করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১২ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪০০ জন। এর মধ্যে রোমেও বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে আক্রান্তরা অনেকেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন দাবি করছে রোম কর্তৃপক্ষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পোপ ফ্রান্সিস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ