Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

কাঁঠালিয়ায় বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ চেষ্টা

ব্যর্থ হয়ে মা-বাবাকে মারধর, বসতঘর ভাঙচুর

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:১৩ পিএম

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসী এক যুবকের বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ চেষ্টা অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ব্যর্থ হয়ে ছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়। তারা ছাত্রীর মা-বাবা ও মামাকে মারধর করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কৈখালী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাতে ছাত্রীর মামা বাদী হয়ে কাঁঠালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার মহিষকান্দি গ্রামের মোশারেফ হোসেনের ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. মহিউদ্দিন বিয়ে করার জন্য দেশে ফিরে আসে। সম্প্রতি সে পশ্চিম চেচরী গ্রামের এক কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় মহিউদ্দিন দলবল নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়ের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। তারা ওই ছাত্রীকে জোর করে তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। এতে বাধা দিতে গেলে ছাত্রীর মা-বাবা ও মামাকে মারধর করে তারা। এসময় ছাত্রীর স্কুল পড়য়া বোনকে অপহরণেও হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ছাত্রীর মামা মহিউদ্দিনসহ সাত জনকে আসামী করে কাঁঠালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন মিরাজ খান (৩০),পলাশ (২৫), সাইফুল ইসলাম (৪০), মারুফ হোসেন (২৫), তুষার (২৫) ও রিয়ামনি আক্তার।

মেয়ের বাবা বলেন, আমার মেয়ে স্থানীয় একটি কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ে। কিন্তু মহিউদ্দিন পড়ালেখা জানে না। সে অনেক দিন ধরে বিদেশে থাকে, তাই তার সঙ্গে আমার মেয়ে বিয়ে বসবে না। আমরাও এ বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হইনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মহিউদ্দিন তার আতœীয়-স্বজন নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা করে।

কাঁঠালিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী সাখাওয়াত হোসেন বলেন, জোরপূর্বক ছাত্রী অপহরণ, বাসা-বাড়ি ভাংচুর ও পরিবারকে জিম্মি করার ঘটনায় ওই ছাত্রীর মামা একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অপহরণ

৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন