Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০৫ এএম

সুন্দরবন বাঁচাতে ব্যবস্থা নিন

বিশ্বের বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন আমাদের সুন্দরবন, যা বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের জন্য একটি গৌরব। একমাত্র সুন্দরবনের কারণে বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেয়ে থাকে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, আমাদের ঐতিহ্যের এই সুন্দরবন আজ ধ্বংসের পথে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে বনে ঢুকে চুরি করে কাঠ সংগ্রহ করছে। কুচক্রী মহল সুন্দরবনের বৃক্ষ নিধনে নেমে পড়েছে। যে সুন্দরী গাছের জন্য সুন্দরবন বিখ্যাত, সেই সুন্দরী গাছ আজ ধ্বংসের পথে। এক সময় সুন্দরবনে অনেক বাঘ ছিল। এখন হাতেগোনা কয়েকটা বাঘের সন্ধান মিলতে পারে। মাঝেমধ্যে বাঘের অকালমৃত্যুর সংবাদ আমাদের ভাবিয়ে তোলে। কেউ কেউ বাঘ শিকার করছে বাঘের চামড়া পাচার করে অর্থ উপার্জনের আশায়। এরা বাঘের ছোট বাচ্চাদেরও রেহাই দিচ্ছে না।সুন্দরবনে মাছ ধরতে গিয়ে হরিণ শিকার করছে। এক সময় সুন্দরবনে এমন ভীতিকর পরিবেশ ছিল যে, যদি কেউ সুন্দরবনে প্রবেশ করত গাছপালার ভিড়ে চারদিক অন্ধকার দেখাত ও প্রাণীদের পায়ের আওয়াজে শরীরে শিহরণ সৃষ্টি হতো। এখন সুন্দরবনে প্রবেশ করলে প্রাণিকুলের সন্ধান পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। সুন্দরবনে নদী দিয়ে প্রবেশ করা তেলবাহী জাহাজ ডুবে গিয়ে নদীর পানির সঙ্গে তেল মিশে মৎস্য প্রজাতির বিচরণক্ষেত্রে মারাত্মক বাধা সৃষ্টি করছে। সুন্দরবন রক্ষায় যথাযথ কর্তৃপক্ষকে কঠোর আইন প্রয়োগ ও বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।
তাইফুর রহমান মুন্না
মোরেলগঞ্জ, বাগেরহাট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সুন্দরবন

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৯ জানুয়ারি, ২০২০
১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন