Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪১ হিজরী

সুন্দরগঞ্জে রোগিকে হত্যার অভিযোগে কবিরাজের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:৪০ পিএম

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে রোগিকে হত্যার অভিযোগে হাতুরে কবিরাজের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা যায়,উপজেলার উত্তর কঞ্চিবাড়ী গ্রামের মৃত মনির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জলিল পুরুষ লিঙ্গের উপরিভাগে টিউমারজনিত রোগে ভুগছিলেন। জলিল এ নিয়ে তার পাতানো বিয়াই পূর্ব বেলকা গ্রামের মৃত আবু বক্কর মিয়ার ছেলে আতিয়ার রহমানের সাথে আলোচনা করলে তিনি তার গ্রামের কবিরাজ ছদ্দি মিয়ার কাছে চিকিৎসা নেয়ার পরামর্শ দেন। সে মোতাবেক গত বৃহস্পতিবার(২৭ ফেব্রুয়ারি) আব্দুল জলিল তার স্ত্রী রেনুকা বেগমকে সাথে নিয়ে বিয়াই আতোয়ার রহমানের বাড়িতে যান। এরপর আতোয়ার গ্রাম্য হাতুরে কবিরাজ(হকার) ছদ্দি মিয়াকে তার বাড়িতে ডেকে আনেন । ছদ্দি মিয়া আতোয়ারের বাড়িতেই আব্দুল জলিলের লিঙ্গের টিউমার কেটে সেলাই দিয়ে তুলা পেচিয়ে কষ্টিপ দ্বারা আটকে দেন। সেদিন রোগি জলিল তার স্ত্রীসহ বিয়াই আতোয়ারের বাড়িতেই অবস্থান করেন। পরদিন(২৮ ফেব্রুয়ারি) জলিলের লিঙ্গ ও অন্ডকোষ ফুলে গেলে তিনি গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এ অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে আতোয়ার ও কবিরাজ ছদ্দি মিয়াসহ চারজন মিলে আব্দুল জলিলকে হত্যা করে লাশ রেখে পলায়ন করেন। এ ঘটনায় মৃত জলিলের ভাতিজা আবুল কালাম বাদি হয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ এনে চারজনকে আসামি করে শনিবার(২৯ ফেব্রুয়ারি) থানায় একটি মামলা করেন। মামলা নং-৪৭। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের মর্গে প্রেরণ করেন। থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,আসামিদের গ্রেফতারে জোর তৎপরতা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ