Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ঢাকা আসছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ মার্চ, ২০২০, ১২:২০ পিএম

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা আজ রোববার (১ মার্চ) ঢাকা সফরে আসছেন। পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব নেওয়ার পর এটাই হবে শ্রিংলার প্রথম ঢাকা সফর। এর আগে তিনি নয়াদিল্লির পক্ষে ঢাকার দূত ছিলেন।
কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানায়, হর্ষবর্ধন শ্রিংলার আসন্ন ঢাকা সফর মূলত দুই কারণে। আসন্ন সফরে তিনি যেমন নরেন্দ্র মোদীর সফরের প্রস্তুতি নিয়ে কাজ করবেন, ঠিক তেমনি বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের কোন কোন ইস্যুতে আগামী দিনে উন্নয়ন ঘটবে তারও প্রাথমিক কাজ সেরে যাবেন।
প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে কূটনীতিতে বিশেষজ্ঞ বলেই হর্ষবর্ধন শ্রিংলাকে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব পদে বেছে নেওয়া হয় উল্লেখ করে কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, জাতীয় নাগরিক তালিকা (এনআরসি) ও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ইস্যুতে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার শিকার ভারত। তাই পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে শ্রিংলার প্রধান দায়িত্ব হচ্ছে, এনআরসি ও সিএএ ইস্যু নিয়ে প্রতিবেশী বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সঙ্গে অবনতির দিকে যেতে থাকা সম্পর্কের উন্নয়ন করা।
ঢাকা-নয়াদিল্লি একাধিক কূটনৈতিক সূত্র বলছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে আগামী ১৭ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার বিষয় এরই মধ্যে চূড়ান্ত হয়েছে। নরেন্দ্র মোদীর আসন্ন ঢাকা সফরের প্রস্তুতি চূড়ান্ত করতেই রোববার ঢাকা আসছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।
এর আগে, ফেব্রুয়ারির মধ্যভাগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিরাপত্তায় নিয়োজিত অগ্রবর্তী দল ঢাকা ঘুরে গেছেন। ঢাকা সফরে মোদি যেসব স্থানে যাবেন সেখানের নিরাপত্তার বিষয়টিও অগ্রবর্তী দল দেখে গেছেন।
প্রসঙ্গত, রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলাকে গত ডিসেম্বরে দুই বছর মেয়াদে পররাষ্ট্র সচিব পদে নিয়োগ দেয় ভারত সরকার। গত জানুয়াতে তিনি সচিব পদে যোগ দেন। হর্ষবর্ধন শ্রিংলা সাবেক পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখালের স্থলাভিষিক্ত হন। ২০১৫-১৮ সাল পর্যন্ত শ্রিংলা বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর একান্ত ইচ্ছার প্রেক্ষিতেই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আমলাতান্ত্রিক প্রধানের দায়িত্ব তাকে দেওয়া হয়েছে বলে কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানিয়েছে।
ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বর্ণাঢ্য কর্মজীবন শুরু করার পর বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, মিয়ানমার ও মালদ্বীপে ভারতের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি করার সময় তিনি সহকারী সচিবের দায়িত্ব পালন করেছেন। দক্ষিণ এশিয়ার রাষ্ট্রগুলোর পারস্পারিক সহযোগিতা জোট সার্কের সহকারী মহাসচিব হিসেবেও তিনি কাজ করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-বাংলাদেশ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ