Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০২ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ইতালির তিন ফুটবলার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

 প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বেড়েই চলেছে মৃত্যুর মিছিল। চীনের উহান শহর থেকে মধ্যপ্রাচ্য হয়ে ইউরোপ-আমেরিকায় ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। ইতিমধ্যে প্রায় তিন হাজার মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর প্রভাব পড়েছে ক্রীড়াঙ্গণেও। টোকিও অলিম্পিক নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। দর্শক শ‚ন্য মাঠে খেলেও করোনা থেকে মুক্তি মেলেনি ইতালির খেলোয়াড়দের।

করোনাভাইরাসের কারনে ইতালিয়ান লিগ ‘সিরি আ’ ও ইউরোপা লিগের ম্যাচগুলো দর্শকশুন্য খালি স্টেডিয়ামে আয়োজন করা হয়েছে। এরপরও দেশটির তুসকান অঞ্চলের ইউএস পিয়ানি ক্লাবের তিন খেলোয়াড় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। তবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ আক্রান্তদের নাম-পরিচয় এখনো প্রকাশ করেনি। তিন খেলোয়াড় ছাড়াও একজন স্টাফ আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এ ঘটনার পর ক্লাবের প্রত্যেক খেলোয়াড়, টেকনিক্যাল স্টাফ ও ম্যানেজারকে তাদের বাড়িতে ১৫ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। গত ২২ ফেব্রæয়ারি ওই খেলোয়াড়দের মধ্যে একজনের লক্ষণ প্রকাশিত হয়। এরপর অন্যদের উপসর্গ দেখা দেয়। এরই প্রতিক্রিয়ায় সিরিআ-তে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ক্লাব জুভেন্টাস জরুরিভিত্তিতে তাদের অনুশীলন বন্ধ করে দেয়। মার্চে ৮ তারিখ পর্যন্ত খেলোয়াড়দের প্রত্যেককে নিজের বাসায় থাকতে বলা হয়েছে। শুধু জুভেন্টাসই নয়, ইন্টার ও এসি মিলান ক্লাব কতৃপক্ষও একই রকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ সপ্তাহে সিরিআর ফিক্সার অনুযায়ী উদিনসে-ফাইরন্টিনা, মিলান-জেনোয়া, পারমা-স্পাল, সাসুলো-ব্রেসিয়া ও জুভেন্টাস-মিলান ম্যাচগুলো মে মাসের ১৩ তারিখে পরিবর্তিত করা হয়েছে।

এই ঘটনার আগে ইতালিতে এক হাজারেরও বেশি মানুষের দেহে করেনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। তার মধ্যে মারা গেছেন ২৯ জন। প্রতিদিনই এই সংখ্যা বাড়ছেই। তার কতৃপক্ষ এক অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ না করার নির্দেশনা দিয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইতালি

৭ নভেম্বর, ২০১৬
৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন