Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০১ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

মানুষের কষ্ট বোঝার শক্তি আ. লীগের নেই

সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন উদ্দেশ্য করে বলেছেন, মানুষের দুঃখ-দুর্দশা, ব্যথা-বেদনা-কষ্ট বোঝার শক্তি আওয়ামী লীগ সরকারের নেই। গতকাল জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

‘পানি ও বিদ্যুতের দাম সামান্য বাড়ানো হয়েছে, এতে সাধারণ মানুষের সমস্যা হবে না’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব এ প্রতিক্রিয়া জানান। মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ এমন পর্যায়ে চলে গেছেন যে, তাদের লোকজনদের ঘর থেকে, গোডাউন থেকে শত শত কোটি টাকা পাওয়া যাচ্ছে। তাদের এখন সাধারণ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা, ব্যথা-বেদনা-কষ্ট বোঝার শক্তিও নেই।

তিনি বলেন, তারা (আওয়ামী লীগ) জনগণ থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। জনগণের দুঃখ-দুর্দশা এখন তাদের কাছে কোন প্রশ্নই নয়। যেহেতু তারা জনগণের ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতা দখল করেছে। তারা জনগণ থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে তাই জনগণের ব্যথা-বেদনা, দুঃখ-দুর্দশা বুঝতে পারে না। তারা মানুষের কষ্টটা বুঝতে পারে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তম, তিনি শুধু স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েই নিজের রাজনৈতিক জীবনের ইতি টানেননি। পরবর্তীকালে জনতা বিপ্লবের মধ্য দিয়ে তাকে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দিয়েছে। তখন তিনি দেশের সকল মানুষকে, পেশাজীবীদের ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা করেছেন। তিনি এদেশে উৎপাদনের রাজনীতি শুরু করে দেশকে খাদ্যে সয়ংসম্পূর্ণ করেছেন। বিশেষ করে বাংলাদেশের রাজনীতিতে, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে যারা মৎস্য উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত আছেন তাদের বড় ভূমিকা রয়েছে। তাদের ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা করেছেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়া এখনও কারান্তরীণ রয়েছেন। অত্যন্ত অসুস্থ অবস্থায় তিনি কারাগারে রয়েছেন। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল তিনবার রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে এবং তিনি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সমাজের রাজনীতিতে একটা যুগান্তকারী অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছেন। আমরা আজকে তার মুক্তি কামনা করেছি। মৎস্যজীবীদল শপথ নিয়েছে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য তারা সংগ্রাম চালিয়ে যাবেন।

এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আমাদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা করেছি এবং করছি। দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে আমরা মনে করি তিনি শুধু বিএনপির নেতা নন, তিনি সমগ্র দেশের মানুষের মুক্তির নেতা। তিনি গণতন্ত্রের মুক্তির নেতা। সেই কারণে তার অসুস্থতা আমাদের সবাইকে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন করেছে। আমরা দুই বছর ধরেই চেষ্টা করছি, একদিকে আইনগতভাবে অন্যদিকে রাজনৈতিকভাবে মুক্ত করবার জন্য। এই ভয়াবহ একটি ফ্যাসিস্ট সরকার, যারা সমস্ত মানবিক বোধগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে, তারা আজকে শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মির্জা ফখরুল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ