Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

পটুয়াখালীর হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় নারীর মৃত্যু ঘটনায় ভাংচুর-বিক্ষোভ

রাত ২টা পর্যন্ত অবরুদ্ধ চিকিৎসকরা

পটুয়াখালী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ মার্চ, ২০২০, ৯:৫৪ এএম

পটুয়াখালীতে প্রাইভেট স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান শরীফ হোসেন-সোনাবানু স্পেশালাইজড হাসপাতালে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় এক গৃহবধুর মৃত্যুর অভিযোগ অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাত পৌনে ১১টার দিকে গৃহবধু আইরিন আক্তার (২২) অপারেশন থিয়েটারে মৃত্যু হয়। এঘটনার জেরে সাড়ে ১১টার দিকে নিহত‘র পরিবার ও এলাকাবাসী ওই হাসাপাতালে ভাংচুর চালায়। এসময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ করে তারা। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

নিহত ওই গৃহবধুর মা মাহিনু বেগমের অভিযোগ-বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এ্যাপেডিসাইটস অপারেশন করাতে পটুয়াখালীর প্রাইভেট স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান শরীফ হোসেন-সোনাবানু স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করে। এসময় অপারেশন থিয়েটারে দায়িত্বরত পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) চীফ মেডিকেল অফিসার এটিএম নাসির উদ্দীন ও বরগুনা হাসপাতালের জুনিয়র কন্সালটেন্ট তারেক হাসান কোন প্রকার পরীক্ষা-নিরিক্ষা ছাড়াই রোগীর শরীরে ঔষধ প্রয়োগ করলে আইরিন অসুস্থ্য হয়ে পরে। পরে পটুয়াখালী সরকারী হাসাপাতালের ডাক্তার হোসাইন, এফএম আতিকুর রহমান এবং ফেরদৌসি আক্তারসহ একাধিক ডাক্তারের সরনাপন্ন হয় তারা। এসময় আইরিনের অবস্থার উন্নতি ঘটাতে একের পর এক ঔষধ প্রয়োগ করা হয়। কিন্তু রাত পৌনে ১১টার দিকে আইরিন আক্তার অপারেশন থিয়েটারে মারা যায়।

আইরিনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পরলে রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতালে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। ভাংচুরের সময় গোটা হাসপাতালে আতংক ছড়িয়ে পরলে হাসপাতালে চিকিৎসারত একাধিক রোগীরা দিকদ্বিক ছোটা-ছুটি করে যে যার মত আশ্রয় নেয়। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশের কয়েকটি দল ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। বিক্ষুব্ধ স্বজন ও এলাকাবাসীরাও পুলিশের উপস্থিতিতে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ করে।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত ডাক্তার এটিএম নাসির উদ্দীন ও তারেক হাসান বলেন-চিকিৎসায় কোন কোন প্রকার অবহেলা ও অনিয়ম হয়নি। রোগী খিচুনি রোগে আক্রান্ত ছিল। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি।তদন্তে আমাদেও অবহেলা ও অনিয়ম বেড়িয়ে আসলে তার দায়ভার নেবো।
রাত ২টায় পটুয়াখালী সদর থানায় এসআই মেহেদী হাসান জানান,লাশের সুরতহাল সম্পন্ন হয়েছে,ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তি ব্যববস্থা নেয়া হবে।



 

Show all comments
  • আজম ৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৩০ পিএম says : 0
    দোষীব্যক্তিদের উপযুক্ত বিচার দাবি করছি।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভুল চিকিৎসা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ