Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আর্মি স্টেডিয়ামে কনসার্টকে কেন্দ্র করে বিমানবন্দর সড়কে ভয়াবহ যানজট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০২০, ৬:৫০ পিএম

ঐতিহাসিক ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের চেতনা পুনরুজ্জীবিত করতে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে বার্ষিক জয়বাংলা কনসার্ট। আয়োজকরা জানান, দুপুর ১টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এই কনসার্টের সিডিউল রয়েছে। অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশের জন্য সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত গেট খোলা ছিল। এই কনসার্টকে কেন্দ্র করে বিমানবন্দরে সড়কে দুপুর থেকেই সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ যানজট। তাতে বিপাকে পড়েন বিদেশগামী ও বিদেশফেরত যাত্রীসহ সাধারণ যাত্রীরা। 

ভুক্তভোগিদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, যানজটে আটকা পড়ে মহাখালী থেকে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাতে লেগেছে দুই ঘণ্টারও বেশি সময়। তেমনি বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে তিন ঘণ্টায় ফার্মগেইটে পৌঁছাতে পারেন নি অনেকেই। ভুক্তভোগিরা এই ভোগান্তির জন্য ট্রাফিক পুলিশের অব্যবস্থাপনাকে দায়ি করেছেন। তবে ট্রাফিক পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেন, ব্যবস্থাপনার কোনো কমতি ছিল না। হাজার হাজার মানুষ এক সাথে স্টেডিয়ামের দিকে আসতে থাকায় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ে। সেই সাথে বেশ কিছু ভিআইপি ওই কনসার্টে যোগ দেয়ার কারণে পরিস্থিতি সামাল দেয়া কষ্টকর হয়ে পড়ে। এসব কারণেই মূলত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক তথা বিমানবন্দর সড়কের উভয়দিকে যানজটের সৃৃষ্টি হয়।
গুরুত্বপূর্ণ এই মহাসড়ক দিয়ে দেশের ১৭টি জেলার গাড়ি চলাচল করে। যানজটের কারণে মহাসড়কে শত শত দূরপাল্লার বাসও আটকে থাকে। ঢাকামুখি গাড়ির লাইন বনানী থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত দীর্ঘ হয়। মহাখালী বাস টার্মিনালের এক বাস মালিক জানান, দুপুরের পর ঢাকার বাইরে থেকে এ পথে কোনো বাসই সময়মতো টার্মিনালে প্রবেশ করতে পারেনি। আবার যেগুলো ছেড়ে গেছে সেগুলো দুই ঘণ্টায়ও উত্তরা পার হতে পারেনি। যাত্রীদের ভোগান্তির চিত্র তুলে ধরে একজন পরিবহন শ্রমিক বলেন, মহাসড়কের পাশে এরকম কনসার্টকে কেন্দ্র করে পুলিশকে আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল। প্রয়োজনে ট্রাফিক পুলিশ গাড়ি বিকল্প পথে ডাইভার্ট করলে এতটা ভয়াবহ অবস্থা হতো না।
এদিকে, কনসার্টের সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ গণমাধ্যমকে জানান, যানজট এবং প্রবেশ পথে নিয়মিত নিরাপত্তা চেকআপের জন্য ভীড় এড়াতে আয়োজকরা দর্শক ও অতিথিদের বেলা ১১টা থেকে বিকাল ২টার মধ্যে অনুষ্ঠানস্থলে (আর্মি স্টেডিয়াম) প্রবেশের অনুরোধ জানানো হয়েছিল। সে অনুরোধ অনেকেই রক্ষা করেন নি বলেই যানজট পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ নিয়েছে বলে জানান ট্রাফিক কন্ট্রোলের একজন কর্মকর্তা।
আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, দেশের সেরা ব্রান্ডদল ফুয়াদ এন্ড ফ্রেন্ডস, আরবোভাইরাস, ক্রিপটিক ফেইট, শূন্য, চিরকূট, নেমেসিস, ভাইকিং, এফ মাইনর, মিনার, লালন, এভোয়েড রাফা এই কনসার্টে অংশ নিচ্ছে। ব্যান্ডদলগুলো পূর্ববর্তী বছরের ন্যায় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গানের পাশাপাশি নিজেদের গান পরিবেশন করবে। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ এবং মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বিষয় গ্রাফিক্যাল উপস্থাপনা তুলে ধরা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যানজট

২৭ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ