Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মালয়েশিয়ায় রাজকীয় অভ্যুত্থানের অভিযোগ নাকচ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ মার্চ, ২০২০, ২:৩৫ পিএম

মালয়েশিয়ায় রাজ অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের অভিযোগ অস্বীকার করেছে মালয়েশিয়ার রাজা। ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য গার্ডিয়ানে প্রকাশিত এক সম্পাদকীয়র জবাব দিতে গতকাল রাজপ্রাসাদ এক বিবৃতিতে এই অভিযোগ নাকচ করে।
এই সপ্তাহে ব্রিটেনের দৈনিক গার্ডিয়ানে প্রকাশিত একটি সম্পাদকীয় সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানায় রাজ প্রাসাদ। মালয়েশিয়ার রাজা সুলতান আবদুল্লাহ সুলতান আহমদ শাহ বিদ্রোহী শিবিরের সংখ্যাগরিষ্ঠতা দাবি করে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মুহিউদ্দিন ইয়াসিনকে মনোনয়ন দিয়ে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের ফলাফলকে উল্টে দিয়েছেন বলে সম্পাদকীয়টিতে অভিযোগ করা হয়। দুর্নীতির দায়ে কলঙ্কিত একটি দলের সমর্থন নিয়ে গঠিত সরকারের প্রধান হিসেবে গত রোববার (১ মার্চ) মুহিউদ্দিন শপথ গ্রহণ করেন। দলটি ২০১৮ সালের সর্বশেষ সাধারণ নির্বাচনে পরাজিত হয়েছিল।
প্রাসাদ বলেছে, রাজা তার সিদ্ধান্তে আসার আগেই পার্লামেন্ট সদস্য ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সাথে বৈঠক করেন। এসব বৈঠকের পর সম্ভবত মুহিউদ্দিনই পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার সমর্থন পাবেন বলে ধারণার ভিত্তিতে এ সংক্রান্ত ঘোষণা দেয়ার বাধ্যবাধকতা তৈরি হয়েছিল।
ইস্তানা নেগারা প্রাসাদ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ফেডারেল সংবিধানের বিধান পুরোপুরি কঠোরভাবে মেনে চলা হয়। উন্মুক্ত পরামর্শ গ্রহণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। এসব বিবেচনার পরই ফেডারেল সংবিধানের অধীনে নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা প্রয়োগ করেন রাজা। অতএব কোনোভাবেই এই প্রক্রিয়াটিকে রাজকীয় অভ্যুত্থান হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না।
মুহিউদ্দিন আগামী সপ্তাহের প্রথম দিকে তার মন্ত্রিসভা ঘোষণা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। তিনি তার সরকারকে আস্থা ভোট দিয়ে চ্যালেঞ্জ জানাতে বিরোধী প্রচেষ্টার মধ্যে পার্লামেন্টের কার্যক্রম শুরু করা দুই মাসের জন্য স্থগিত করেছেন। ২৪ ফেব্রæয়ারি মাহাথির অপ্রত্যাশিতভাবে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে পদত্যাগের পরে ক্ষমতাসীন জোট ভেঙে যাওয়ার পরে দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশটি রাজনৈতিক কোন্দলে অস্থিতিশীল হয়ে পড়েছে। -আল জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মালয়েশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ