Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

তালিবান বন্দিদের মুক্তি দিচ্ছে আফগান সরকার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি সোমবার বলেছেন, তালেবান বন্দিদের মুক্তি দেয়ার একটি ব্যবস্থায় পৌঁছানো গেছে এবং মঙ্গলবার এ বিষয়ে একটি প্রেসিডেন্টের ডিক্রি জারি করা হবে।
ঘানির এই মন্তব্যটি তিনি আরও পাঁচ বছরের মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হিসাবে শপথ নেয়ার পরে আসে। একই সময়ে কয়েক মিটার দূরত্বে তার নির্বাচনী প্রতিদ্ব›দ্বী আবদুল্লাহ আবদুল্লাহও সমান্তরাল শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করেন।
ঘানি তার বক্তব্যে বলেন যে, তিনি যে সরকার গঠন করছেন তা কেবল তার রাজনৈতিক শিবিরের সদস্যদেরই অন্তর্ভুক্ত করবে না। তবে তিনি আগের মন্ত্রিসভা আরো দু’সপ্তাহ অব্যাহত রাখবেন। ‘পরে আমরা পরামর্শ করে একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার গঠন করব,’- তিনি বলেন।
গত ২ মার্চ জনাব ঘানি বলেছিলেন যে, মার্কিন-তালেবান চুক্তিতে বন্দি বিনিময় করার আহ্নবা জানিয়ে যে ধারাটি রয়েছে সেই প্রতিশ্রুতি তিনি দেবেন না। একটি বিরাট বন্দিদলকে বছরের পর বছর ধরে মুক্তির দাবি করা হচ্ছে তালিবানদের পক্ষ থেকে।
ঘানি আফগানিস্তানে সহিংসতা হ্রাসকারী আংশিক যুদ্ধ অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি রেখেছিলেন। তবে তিনি আলোচনার সময় ১০ মার্চ নাগাদ তালেবানদের এক হাজার বন্দিকে মুক্তি দেয়ার এবং আফগান সরকারকে প্রায় ৫০০ বন্দিকে মুক্তি দেয়ার দাবিপ্রত্যাখ্যান করেছিলেন। এরপর তালিবানরা তাদের ৫ হাজার বন্দি মুক্তি না দিলে আলোচনায় বসার প্রস্তাব নাকচ করে দেয়। এটা ছিল আফগান-তালিবান আলোচনায় মূল প্রতিবন্ধকতা। তালিবান নেতা জবিউল্লাহ মুজাহিদ রয়টার্সকে ফোনে বলেন, ‘আমাদের ১০০ বা ২০০ কমবেশি ৫ হাজার বন্দিকে মুক্তি না দিলে আমরা আফগান সরকারের সাথে আলোচনায় যোগ দেব না’।
শপথ গ্রহণের পুরো সময় বাইরে প্রচন্ড বোমা বিস্ফোরণ ও গুলি বর্ষণের আওয়াজ পাওয়া যায়। তবে জনাব ঘানি বলেন, এ ধরনের বোমা আর গুলি বর্ষণ করে আমাকে জাতির সেবা করা থেকে বিরত রাখা যাবে না।
এদিকে প্রতিদ্ব›দ্বী আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ জনাব আশরাফ ঘানিকে মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে এবং নিজেকে বৈধ প্রেসিডেন্ট দাবি করে অপর একটি অনুষ্ঠানে শপথ গ্রহণ করেন। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ