Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, ০২ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

নওগাঁর রাণীনগরে জোর করে জমিদখল করে মারপিট, হাসপাতালে ভর্তি ১জন

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ মার্চ, ২০২০, ৬:২৬ পিএম

নওগাঁর রাণীনগরে জোরপূর্বক জমি দখল করাকে কেন্দ্র করে মারপিট করে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। এতে করে গুরুত্বর আহত অবস্থায় আজিদা বেওয়া নামের এক বৃদ্ধা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আহত অপর দুইজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আতাইকুলা গ্রামে। এদিকে পথ বন্ধ করে বাঁশের বেড়া দেওয়ায় চলাচল করতে পারছে না ওই ভুক্তভুগি পরিবার।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের আতাইকুলা গ্রামের মৃত- মজিবর রহমানের ছেলে মাসুদুর রহমানের দীর্ঘদিন ভোগদখল করে আসা বাড়ি সংলগ্ন জমি জোরপূর্বক দখল করতে আসে একই গোষ্ঠির অন্য সদস্যরা। মাসুদুর রহমান নিজের কর্মস্থলে থাকার সুযোগে একই গ্রামের মৃত-লছির উদ্দিনের ছেলে কফিল উদ্দিন, রমজান আলী ও আসাদুল ইসলাম সঙ্গিয় লোকজন মিলে মাসুদের পৈতিক দখলে থাকা প্রায় ৫শতাংশ জমি নিজেদের দাবী করে জোরপূর্বক দখল করতে আসলে মাসুদের মাসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দখল করতে আসা ব্যক্তিরা তাদেরকে এলোপাতারী মারপিট করে। এসময় প্রতিপক্ষের মারপিটে মাসুদের মা আজিদা বেওয়া গুরুত্বর আহত হলে তাকে রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। এছাড়াও মারপিটে অপর দুইজন মাসুদের স্ত্রী শিল্পী ও ছেলে সৈকত আহত হলে তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু আজিদা বেওয়ার অবস্থা গুরুত্ব হওয়ায় তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন। এছাড়াও জমিতে থাকা অনেকগুলো গাছ ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে।

মাসুদুর রহমান বলেন এই জমিতে আমার বাবার কবর রয়েছে। কিন্তু বাবার মৃত্যুর পর আমার গোষ্ঠির অন্য সদস্যরা ওই জমি পাবেন বলে দাবী করে আসছেন। এই বিষয়ে একাধিকবার গ্রাম্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু বৈঠকে তা সমাধান হয় না। তারই জেরে তারা আমার অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তারা আইনের মাধ্যমে যদি জমি পায় তা আমি দিয়ে দিবো। কিন্তু তারা জোর করে ওই জমি দখল করে বাঁশের বেড়া দিয়েছে যার কারণে আমরা বাড়ি থেকে বের হতে পারছি না। তারা প্রভাবশালী হওয়ায় আমি পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। মারপিটসহ এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশায় বুধবার থানায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত ১৭জনের নামে একটি অভিযোগ দিয়েছি। আশা রাখি পুলিশ প্রশাসন ন্যায় বিচারটিই করবেন।

বিবাদী রমজান আলীর ছেলে রাকিব হোসেন বলেন আমরা মাসুদের ওই জমি পাবো। দীর্ঘদিন যাবত মাসুদ ওই জমির দখল দিচ্ছে না। তাই ওই দিন আমরা লোকজন নিয়ে বাঁশের বেড়া দিয়ে জমি দখলে নিয়েছি। আর মাসুদ ও মাসুদের পরিবারের লোকজনরা অনেক খারাপ। ওই জমিতে গিয়ে বেড়া দেওয়ার সময় তারাই আমাদের মারপিট করেছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান তোতা বলেন, এই বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার বৈঠক করেও সমাধান করতে না পারায় আমি তাদের আইনের আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলাম। আর সম্প্রতি হয়ে যাওয়া মারপিটের ঘটনা আমাকে কোন পক্ষই এখন পর্যন্ত জানাইনি।
রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জরুহুল হক বলেন এই ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ